fbpx

Nokia: হাজারও চেষ্টার পরও ব্যর্থ! কোন কারণে আজ অতল সমুদ্রে তলিয়ে গেল নোকিয়ার ব্যবসা?

জয়িতা চৌধুরি, কলকাতাঃ একদা নোকিয়া ছিল মোবাইল ফোনের জগতের সবচেয়ে বেশি জনপ্রিয় ব্র্যান্ড। দীর্ঘদিন ভারতীয় বাজারে একচেটিয়া অধিপত্য ছিল তার। তবে একদিন হঠাৎ করেই যেন নোকিয়া হারিয়ে গেছে স্মার্ট অ্যান্ড্রয়েড ফোনের ভিরে। এই হারিয়ে যাওয়া নিয়ে নানা জনের নানা মত। কেউ বলেন, নোকিয়ার পতনের অন্যতম কারণ, মাইক্রোসফটের সঙ্গে অসময় চুক্তি। কেউ আবার দোষারোপ করেন, নোকিয়া কোম্পানির ব্যবস্থাপনাকে। কেউ আবার বলেন, তারা নাকি অ্যান্ড্রয়েড ব্যান্ডওয়াগনের সঠিক সুবিধা নিতে পারেননি। তবে গুজব যাই হোক না কেন, নোকিয়ার সিএও মাইক্রোসফটের আয়োজিত একটি সংবাদ সম্মেলনে বলেন, ‘আমরা কিছু ভুল করিনি! তবে একপ্রকার হেরে গেছি।‘

nokia
সম্প্রতি এক সাক্ষাৎকারে INSEAD কোম্পানির ম্যানেজিং পার্টনার এবং স্ট্র্যাটেজিক অ্যালায়েন্স প্রোগ্রামের প্রোগ্রাম ডিরেক্টর ইয়েভেস ডজ ইনসিড ( Yves Doz ) নোকিয়ার বিপুল ব্যবসায়িক ক্ষতিকে বিশ্লেষণ করেছেন। দেখে নেওয়া যাক ডজের বিশ্লেষণ করা কারণগুলি।

  1. মাইক্রোসফটের সঙ্গে চুক্তি
    নোকিয়ার ব্যর্থতার অন্যতম কারণ হল টেক জায়ান্ট মাইক্রোসফটের সঙ্গে অসময় চুক্তি। এমন সময় নোকিয়া- মাইক্রোসফট চুক্তি হয়েছিল যে সময় সফটওয়্যারটি লোকসানের মধ্যে দিয়ে যাচ্ছিল। অন্যদিকে অ্যাপেল ( Apple ), স্যামসাংয়ের ( Samsung )মতো প্রতিদ্বন্দ্বীরা উদ্ভাবন ও প্রযুক্তিগত দিক থেকে অনেকটা বেশি উন্নতি করে ফেলেছে। এই গতিশীল ও কঠোর পরিবর্তনের সঙ্গে খাপ খাওয়াতে না পারা ও মাইক্রোসফটের নোকিয়া অধিগ্রহণ ব্যথতার মূল কারণ হিসেবে বিবেচিত হয়।

nokia 3

2. ভুল বিপণন কৌশল
যেকোনো স্টার্টআপের ক্ষেত্রে সঠিক বিপণন কৌশল অত্যন্ত জরুরী। নোকিয়ার ক্ষেত্রেও একই জিনিস দেখা যায়। অপটু বিপণনের জন্য রীতিমত বন্ধ হয়ে যায় নোকিয়ার একচেটিয়া আধিপত্য। নোকিয়া ‘Umbrella branding’ নামক একটি বিপণন পদ্ধতি ব্যবহার করে যার প্রবর্তক ছিল অ্যাপেল কোম্পানি। অ্যাপলই প্রথম কোম্পানী যেটি আইফোনের ( Iphone series ) ক্ষেত্রে Umbrella branding পদ্ধতি ব্যবহার করে প্রতিযোগিতার শীর্ষে পৌঁছে যায়। বছরের পর বছর এই umbrella -র সাথে নতুন মডেল যুক্ত করতে থাকে। পরবর্তীতে একই পন্থা অবলম্বন করে স্যামসাং। গ্যালাক্সি ( Samsung Galaxy series ) সিরিজ লঞ্চ করে তারাও umbrella branding করেন এবং সফলও হয়, কিন্তু নোকিয়ার ক্ষেত্রে এই কৌশল কোনো সুরহা করতে পারেনি।

nokia 2

3.  প্রযুক্তিগত অগ্রগতি উপেক্ষা
নোকিয়া বরাবরই প্রযুক্তির সঙ্গে তাল মিলিয়ে চলতে ব্যর্থ হয়েছে। নোকিয়া তার হার্ডওয়্যারের জন্য বহুল পরিচিত ছিল। তাই সফ্টওয়্যার লাইন আপের দিকে খুব বেশি মনোযোগ দেয়নি। প্রাথমিকভাবে ধারণা করা যায় তারা সম্ভবত ফোনে উদ্ভাবন আনার ঝুঁকি এড়াতে প্রযুক্তিগত অগ্রগতি উপেক্ষা করেছিল।

4. উদ্ভাবনার অভাব
কথায় আছে অহং বোধই পতনের মূল কারণ। নোকিয়ার অবলুপ্তির জন্য বোধ হয় কোম্পানির অহং বোধও অন্যতম কারণ। তৎকালীন বাজারে যখন অ্যাপেল, স্যামসাংয়ের মতো প্রতিদ্বন্দ্বীরা উন্নত ফোন নিয়ে আসছে নোকিয়া তখন কিছু প্রাথমিক স্মার্টফোনের বৈশিষ্ট্য সহ উইন্ডোজ ফোন চালু করে।

google-news-icon

লেটেস্ট খবর