fbpx

Bollywood: এদিক-ওদিক হলেই জীবন শেষ! ট্র্যাকিং করতে গিয়ে আর একটু হলেই প্রাণ হারাতেন সারা-জাহ্নবী

রিমা শিয়ালী, কলকাতা: বলিউড ইন্ডাস্ট্রির দুই জনপ্রিয় অভিনেত্রী হলেন সারা আলি খান এবং জাহ্নবী কাপুর। তাঁরা দু’জনেই নিজ নিজ কাজকর্ম নিয়ে সর্বক্ষণ ব্যস্ত থাকেন। আজকের প্রজন্মের এই দুই বলি অভিনেত্রীর অনুরাগীদের সংখ্যাও অনেক। সাধারণত শোনা যায়, জনপ্রিয় বলিউড ( bollywood ) তারকাদের মধ্যে বন্ধুত্ব তৈরি হতে পারে না, কারণ তাঁদের মধ্যে সব সময়ই চলে একে অপরকে ছাপিয়ে যাওয়ার প্রতিযোগিতা। তবে সারা আলি খান এবং জাহ্নবী কাপুরের মধ্যে ঠিক তার ব্যতিক্রম। এই দুই বলি তারকাই খুব ভাল বন্ধু। সম্প্রতি তাঁদের বন্ধুত্ব সকলের আলোচনার বিষয় হয়ে দাঁড়িয়েছে।

বেশ কিছুদিন আগে করণ জোহরের জনপ্রিয় টকশো ‘কফি উইথ করণ’-এর মঞ্চে একসঙ্গে এসেছিলেন সারা এবং জাহ্নবী। তাঁদের দু’জনকে এক সঙ্গে দেখে বেশ খুশি হয়েছিল তাঁদের ভক্তরা। এদিন ‘কফি উইথ করণ’-এ নিজেদের বন্ধুত্ব, পছন্দ-অপছন্দ নিয়ে বহু কথা বলেছিলেন দুই বলি অভিনেত্রী সারা এবং জাহ্নবী। এক কথায়, হাসি, মজা আনন্দে বেশ জমজমাট ছিল ‘কফি উইথ করণ’-এর সেদিনের পর্ব। তবে সাথেই সেদিন সারা এবং জাহ্নবী সম্পর্কে বেশ কিছু অজানা কাহিনীও জানা গিয়েছিল।

img 20220718 131926

এদিন নিজেদের বন্ধুত্ব নিয়ে অনেক কথাই বলেছিলেন দুই অভিনেত্রী। তাঁদের জীবনের রোমাঞ্চকর এবং ঝুঁকিপূর্ণ সফর নিয়েও কথা বলেছিলেন সারা এবং জাহ্নবী। জানা যায় ২০২১ সালে কেদারনাথ ভ্রমণের উদ্দেশ্যে যাত্রা করেন এই দুই বলি অভিনেত্রী। সেখানে গিয়ে কোনও ফাইভ স্টার হোটেলে না উঠে তাঁরা ওঠেন একটি সাধারণ হোটেলে। তখন কেদারনাথে তাপমাত্রা ছিল -৭ ডিগ্রি, ওদিকে হোটেলে ছিল না কোন রুম হিটার। শুধু তাই নয়, হোটেলে গরম জলেরও ব্যবস্থা ছিল না। যার ফলে সমস্যার মুখে পড়েছিলেন সারা এবং জাহ্নবী।

img 20220718 131956

এতকিছুর পরও তাঁরা আবার ঠিক করেন যে তাঁরা পায়ে হেঁটেই ভৈরবনাথ দর্শনে যাবেন। যেমন ভাবা তেমনই কাজ। খাড়া পাহাড় বেয়ে উঠতে শুরু করেন তাঁরা। তবে ঠান্ডায় তাঁদের অবস্থা এত খারাপ হয়ে পড়ে যে সেখান থেকে বেঁচে ফেরার আশা ছেড়ে দিয়েছিলেন দু’জনেই। যদিও পরে সেনাবাহিনীদের দ্বারা উদ্ধার হন এই দুই অভিনেত্রী।

বলিউডে শুধু সারা এবং জাহ্নবী নন, পূর্বেও বহু অভিনেতা অভিনেত্রী এরকম ভয়ংকর অভিজ্ঞতার মুখে পড়েছিলেন। প্রীতি জিন্টা, বিগ বি, হৃত্বিক রোশন, কাজল সহ আরও বহু তারকার জীবন পূর্বে ঝুঁকিতে পড়েছিল।

 

google-news-icon

লেটেস্ট খবর