fbpx

তালিবানি রাজত্বে শুধু ছেলেদের জন্যই খুলল স্কুল! মেয়েদের পড়াশোনা নিয়ে বাড়ছে ধোঁয়াশা

আফগানিস্তানের বর্তমান তালিবান নিয়ন্ত্রিত শিক্ষা মন্ত্রক আবার স্কুল চালু করার নির্দেশিকা জারি করেছে। নতুন নির্দেশে জানানো হয়েছে শনিবার থেকেই দেশের সর্বত্র স্কুল খোলার কথা, যদিও নির্দেশে শুধুই ছেলেদের উল্লেখ রয়েছে! মেয়েরা কবে আবার স্কুলে ফিরতে পারবে সেই ব্যাপারে কোনো উল্লেখই নেই! এই নারী বিহীন স্কুলের নির্দেশিকা তালেবানের পূর্বে করা সব প্রতিশ্রুতিরই পরিপন্থী।

New Fatwas in Afghanistan,Taliban Education,Closed Co-Education,Taliban Government,Taliban Bangla News,আফগানিস্তানে নতুন ফতোয়া,তালিবানি শিক্ষা,বন্ধ কো-এডুকেশন,তালিবান সরকার,তালিবানদের বাংলা খবর

নতুন নির্দেশে বলা হয়েছে, “এতদ্বারা জানানো হচ্ছে, সকল শিক্ষকও ছাত্রদের তাদের বেসরকারি, সরকারি ও ধর্মীয় স্কুলে ফিরে যাওযার জন্য।” যদিও এখানে ছেলে মেয়ে আলাদা করে কিছুই বলা হয়নি। এর আগে তালিবান একটি অন্তর্বর্তী কমিটিও গঠন করেছিল আগের বারের কিছু কড়া নিয়মে সংশোধন আনার জন্য। যদিও বাস্তব পরিস্থিতির যে খবর আসছে তা এই নির্দেশিকার থেকে সম্পূর্ণ ভিন্ন। সূত্রের খবর মেয়েদের ব্যাপক হারে কর্মক্ষেত্রে এবং বিদ্যালয়ে যেতে বাধা দেওয়া হচ্ছে। অনেক মেয়েরাই তাদের প্রতি এই বঞ্চনার বিরুদ্ধে রাস্তায় নেমে প্রতিবাদ করেছেন। তাদের দাবি শিক্ষা এবং কর্মক্ষেত্রে সমানাধিকার।

New Fatwas in Afghanistan,Taliban Education,Closed Co-Education,Taliban Government,Taliban Bangla News,আফগানিস্তানে নতুন ফতোয়া,তালিবানি শিক্ষা,বন্ধ কো-এডুকেশন,তালিবান সরকার,তালিবানদের বাংলা খবর

আন্তর্জাতিক সভ্য সমাজ ইতিমধ্যেই আফগানিস্তানের মহিলা শিক্ষক ও পড়ুয়াদের ভবিষ্যৎ নিয়ে চিন্তা জাহির করেছেন। নবনিযুক্ত তালিবানি শিক্ষামন্ত্রী আব্দুলবাকি হাক্কানি বলেছেন, শিক্ষার সব ক্রিয়া কলাপ শরিয়া আইন অনুযায়ী সম্পন্ন হবে। উল্লেখ্য এক সপ্তাহ আগেই আফগান বিশ্ববিদ্যালয়গুলো খুলেছিল কিন্তু তাতে মেয়েদের এবং ছেলেদের মাঝখানের পর্দা দেওয়া ছিল। অনেকেই এর প্রতিবাদ জানিয়েছিল নারীদের উচ্চশিক্ষাক্ষেত্রে বঞ্চনার অভিযোগে কারণ দেশের বেশিরভাগ বিশ্ববিদ্যালয়েই পৃথক ক্লাস করানোর মত পরিকাঠামো নেই। ইতিমধ্যেই আফগানিস্তান ইসলামিক আমিরাত নারী কল্যাণ মন্ত্রক তুলে দিয়ে পাপ থেকে মুক্তির উৎসাহ বর্ধক মন্ত্রক চালু করেছে।

google-news-icon

লেটেস্ট খবর