fbpx

Shehnaaz Gill: এ যেন অপেক্ষার অবসান, বাধা-বিতর্ক পেরিয়ে ‛দীপাবলি’তেই মুক্তি পাবে শেহনাজ বলিপাড়ার প্রথম ছবি

অপেক্ষার অবসান ঘটিয়ে দীপাবলি-তেই মুক্তি ছবিটির! জেনে নিন বিশদে

জয়ীতা সাহা, কলকাতা: বর্তমানে বলিউডের একটি জনপ্রিয় নাম শেহনাজ গিল। ছোট পর্দায় দীর্ঘ দিন অভিনয়ের পর সলমন খানের আসন্ন ছবি ‘কভি ঈদ কভি দিওয়ালি’ ছবির মাধ্যমে বড়ো পর্দায় হাতেখড়ি হয়েছে শেহনাজের। সূত্রের খবর এইবছর ৩০ ডিসেম্বর ছবিটি মুক্তি পেতে চলেছে প্রেক্ষাগৃহে। আর এরই মধ্যে আবারও শেহনাজের এক নতুন ছবি আসতে চলেছে। ছবিটি ২০২৩ সালে মুক্তি পাবে। এমনই একটি পোস্ট সোশ্যাল মিডিয়ায় শেয়ার করেছেন শেহনাজ গিল।

বর্তমানে জনপ্রিয় অভিনেত্রী শেহনাজ গিল, ২০১৫ সালে মিউজিক ভিডিও শিব দি কিতাব দিয়ে তাঁর মডেলিং ক্যারিয়ার শুরু করেন। এরপর ২০১৭ সালে তিনি পাঞ্জাবি চলচ্চিত্র ‘সাত শ্রী আকাল ইংল্যান্ড’-এ একজন অভিনেত্রী হিসেবে আত্মপ্রকাশ করেন । ২০১৯ সালে, সলমান খান সঞ্চালিত জনপ্রিয় রিয়্যালিটি শো বিগ বস ১৩-তে অংশগ্রহণ করেছিলেন শেহনাজ। তৃতীয় স্থান অধিকার করেন রিয়্যালিটি শো টিতে। বিগ বসের প্রতিটি শো’য়ের অংশগ্রহণ কারীদের মধ্যে প্রেম পর্ব দেখা যায়। কখনও তা শো’য়ের সঙ্গেই শেষ হয় কখনও বা টিকে যায়। বিগ বস সিজন ১৩-তেও তেমনি শেহনাজ এবং সিদ্ধার্থের এক মিষ্টি প্রেমের গল্প নিয়ে সেজে উঠেছিল সেটটি।img 20220829 170213

সিদ্ধার্থের মৃত্যুর পর নিজেকে অনেকটা গুঁটিয়ে নিয়েছিলেন শেহনাজ। তবে আবারও ঘুরে দাঁড়িয়েছেন জীবনের মূল শ্রোতে। একের পর এক বড় পর্দায় কাজ করার সুযোগ তার সবচেয়ে বড় প্রমাণ। সম্প্রতি নেটমাধ্যমে শেহনাজের করা পোস্টে দেখা যাচ্ছে ২০২৩-এ আসন্ন ছবিটিতে ২০%কমেডি,২০%রোম্যান্স,২০%মিউজিক,২০%অ্যাকশন এবং২০% কনফিউশন থাকবে। অর্থাৎ সব মিলিয়ে ছবিটি হতে চলেছে ধামাকা। সূত্রের খবর, ছবিটির নির্মাণে রয়েছেন পরিচালক সাজিদ খান।img 20220829 170450পোস্টটিতে অভিনেত্রী শেহনাজ তাঁর অনুগামীদের কাছে জানতে চেয়েছেন ২০২৩-এর দীপাবলি-তে সবাই প্রস্তুত তো এই ধামাকাদার ছবিটি দেখার জন্য। সিদ্ধার্থের মৃত্যুর পর সবাই মনে করেছিলেন শেহনাজ বোধহয় আবারও কারও সঙ্গে প্রেমের সম্পর্কে আবদ্ধ হবেন। তবে সকলের জল্পনাকে কার্যত মিথ্যে প্রমাণ করে নিজের চেষ্টাতেই একের পর এক ধাপ এগিয়ে চলেছেন। তবে সিদ্ধার্থের মৃত্যুর পর শেহনাজ যে বেশ কিছুটা লাইমলাইটে সামনে এগিয়ে এসেছেন তা বলাবাহুল্য। জীবনের সিঁড়িতে একের পর এক পদন্নতির পর কতদিন তিনি তাঁর দেওয়া কথা রাখবেন বা কতদিন সিদ্ধার্থ তাঁর মনে বেঁচে থাকবে তা সময়ই বলবে।

 

View this post on Instagram

 

A post shared by Shehnaaz Gill (@shehnaazgill)

 

google-news-icon

লেটেস্ট খবর