fbpx

Shiney Ahuja:ডুবেছিল কেরিয়ার! ফাঁকা ফ্ল্যাটে পরিচারিকাকে ধর্ষণের অভিযোগ, রাতের ঘুম উড়েছিল সাইনি আহুজার

বাড়ির পরিচারিকাকে ধর্ষণের অভিযোগ আসে সাইনির বিরুদ্ধে। শুধু ধর্ষণ নয় তিনি নাকি প্রাণনাশের হুমকি দেন পরিচারিকাকে। এই অভিযোগ আসার পরই অভিনয় জীবন একেবারেই ধ্বংস হয়ে যায় সাইনির। আসল ঘটনা জানেন?

বলিউডে পা দেওয়ার পর পরই অভিনেতা সাইনি আহুজার ওপর এল পরিচারিকাকে ধর্ষণের অভিযোগ। সেই অভিযোগ হওয়ার পরই, শুরুতেই শেষ হয়ে গেল অভিনেতার কেরিয়ার। তবে ধর্ষকের কোন জাত, ধর্ম, বর্ণ হয় না। কোনও পেশাও হয় না। দক্ষ প্রতিশ্রুতিবান অভিনেতা হওয়া সত্ত্বেও বলিউড পরিচালকরা নাম বাদ দিতে থাকেন তাঁর। আইনের হাত থেকে নিস্তার পাননি তিনি।

 ২০০৬ সালে ‘হাজারোঁ খোয়াইসে অ্যাসি’ ছবিতে অভিনয় প্রতিভার পরিচয় রাখেন।  সেরা ডেবিউট্যান্টের পুরস্কার পেয়েছিলেন এই ছবির জন্য। গ্যাংস্টার’, ‘ইও লমহে’, ‘লাইফ ইন আ মেট্রো’, ‘ভুল ভুলাইয়া’ ছবিতে কাজ করে তখন বেশ পরিচিতি লাভ করছেন। কেরিয়ারের উত্থান মুহুর্তেই এলো সেই বিস্ফোরক অভিযোগ। ২০০৯ সাল নাগাদ বাড়ির পরিচারিকাকে ধর্ষণের অভিযোগ আসে সাইনির বিরুদ্ধে। শুধু ধর্ষণ নয় তিনি নাকি প্রাণনাশের হুমকি দেন ঐ পরিচারিকাকে। এই অভিযোগ আসার পরই অভিনয় জীবন একেবারেই ধ্বংস হয়ে যায় সাইনির।

‘ধর্ষিতা’ পরিচারিকা নিজের বয়ান বদলেছিলেন ঘটনার পরপর। জানিয়েছিলেন সাইনি তাঁকে ধর্ষণ করেননি। মানুষ বুঝেছিল মিথ্যা অভিযোগে ফাঁসানো হচ্ছে অভিনেতাকে। সে সময় বলিউডের কিছু ছবিতে কাজের অফারও পেয়েছিলেন সাইনি।কিন্তু অচিরেই সত্য সামনে আসে। বিচারপতি বুঝেছিলেন ধর্ষিতা মিথ্যে বলছেন । পরে ধর্ষিতা ঘটনার সঠিক বয়ান দেন। যদিও ধর্ষণের অভিযোগে সাত বছর জেল খাটেন সাইনি আহুজা।
img 20220816 110313

ধর্ষণ অভিযোগে অভিযুক্ত হওয়া সত্বেও সেসময় স্ত্রী অনুপম আহুজা পাশে ছিলেন অভিনেতার। স্ত্রী হিসেবে সমস্ত কর্তব্য করেছিলেন। অনুপম জানতেন তাঁর স্বামী অপরাধী নন। তাই চরম অভিযোগের মুহূর্তেও সঙ্গে থেকে মনের জোর দিয়েছেন। অভিনেতা জানিয়েছেন, অনুপম তাঁর জীবনে ঈশ্বরের আর্শীবাদ। সকলে ভুল বুঝলেও, তাঁর স্ত্রী দেবদূতের মতো পাশে থেকেছেন।

google-news-icon

লেটেস্ট খবর