Shivaji Jayanti : ১৫ বছর বয়সে শিবাজী প্রথম যুদ্ধ! ছবিতেই জেনে নিন মারাঠা যোদ্ধার বীরত্বের কাহিনী

আজ ৩৯২ তম ছত্রপতি শিবাজী মহারাজের ( Chhatrapati Shivaji jayanti) জন্ম জয়ন্তী। মহারাষ্ট্রে চারিদিকে আলোয় আলোকিত পরিবেশ। মারাঠা সম্প্রদায়ের আজ এক বিশেষ উৎসব। ছত্রপতি শিবাজী মহারাজ ( Chhatrapati Shivaji jayanti) ১৬৩০ সালে ১৯ ফেব্রুয়ারি পুনের শিবনেরি দুর্গে ( Shivneri fort of Pune) জন্মগ্রহণ করেন। এই কারণেই প্রতিবছর ১৯ ফেব্রুয়ারি পালিত হয় ছত্রপতি শিবাজী মহারাজের জন্ম জয়ন্তী ( Chhatrapati Shivaji Maharaj’s birth anniversary) উৎসব। শিবাজী একজন মারাঠা যোদ্ধা ( Maratha warriors) এবং তার প্রতিষ্ঠাতা। তিনি ছিলেন অত্যন্ত সাহসী, বুদ্ধিমান, সাহসী ও দয়ালু শাসক। এমনকি তিনি ভারত মাতার জন্য নিজের জীবন উৎসর্গ করে দিতেও রাজি ছিলেন। জেনে নিন এই ছত্রপতি শিবাজী মহারাজের বীরত্বের কাহিনী ( heroism of Chhatrapati Shivaji Maharaj)।

 

Shivaji Jayanti Shivaji jayanti : শিবাজীর জন্মগ্রহণ

ছত্রপতি শিবাজী মহারাজ ১৬৩০ সালে ১৯ ফেব্রুয়ারি পুনের শিবনেরি দুর্গে জন্মগ্রহণ করেন। এই কারণেই প্রতিবছর এই দিনে পালন করা হয় ছাত্রপতি শিবাজী মহারাজের জন্ম জয়ন্তী। তার পিতা ছিলেন শাহজী ভোঁসলে ও মাতা ছিলেন জীজাবাঈ। মায়ের কাছে রামায়ণ ও মহাভারতের কাহিনী শুনে তাঁর মনে বীরত্ব ও দেশপ্রেমের প্রতি ভালোবাসা সঞ্চার হয়েছিল। তাঁর জীবনে তাঁর মায়ের অবদান তাঁর মনে রেখাপাত করেছিল।

 

Shivaji Jayanti Shivaji jayanti : শিবাজীর যুদ্ধ

১৫ বছর বয়সে শিবাজী ( Chhatrapati Shivaji jayanti) প্রথম যুদ্ধ করেছিলেন। তিনি তোরণা  দুর্গে আক্রমণ করেছিলেন এবং তাতে জয়লাভ করেছিলেন। এছাড়াও তিনি কোন্দনা ও রাজগড় দুর্গেও বিজয় পতাকা উত্তোলন করেছিলেন। শিবাজীর এই জয়লাভ দেখে বিজাপুর সুলতান শাহজীকে বন্দী করেছিলেন। এই কারণে তিনি কোন্দনা দূর্গ তাকে  ফিরিয়ে দিতে বাধ্য হয়েছিলেন। এরপর ঔরাঙ্গজেবের সঙ্গে বিজাপুরের সুলতানের সংঘাতের সময় শিবাজী পুরন্দর এবং জাওলি স্থান দখল করে নিয়েছিলেন।

 

Shivaji Jayanti Shivaji jayanti : শিবাজী রাজ্যজয়

ছোট থেকেই মহারাষ্ট্র এবং স্থানীয় পার্বত্য মাওয়ালি জনগোষ্ঠীরর সাথে শিবাজীর ঘনিষ্ঠ সম্পর্ক হয়েছিল। এই মাওয়ালিদের নিয়েই সর্বপ্রথম তিনি সেনাবাহিনী গড়ে তোলেন। ১৬৪৭ খ্রিষ্টাব্দে কোণ্ডদেবের মৃত্যুর পর শিবাজী রাজ্যজয় লাভ করেন।

 

Shivaji Jayanti Shivaji jayanti : আফজল খাঁর সঙ্গে লড়াই

১৬৫৯ সালে বিজাপুরের সুলতান আফজাল খানের এক বিশাল সেনাবাহিনী শিবাজীর বিরুদ্ধে প্রেরণ করেছিলেন এবং নির্দেশ দিয়েছিলেন যে শিবাজীকে মৃত অবস্থায় নিয়ে আসতে হবে। আফজাল খান শিবাজিকে হত্যা করার চেষ্টা করেছিলেন কিন্তু শিবাজি ( Chhatrapati Shivaji jayanti) তাঁর বুদ্ধিমত্তাকে কাজে লাগিয়ে আফজাল খানকে হত্যা করেছিলেন। যা মারাঠা সেনাবাহিনীকে আরও শক্তিশালী করে তুলছিল।

 

Shivaji jayantiShivaji jayanti : শিবাজীর চরিত্র

শিবাজী ( Chhatrapati Shivaji jayanti) ছিলেন একজন বহুমুখী প্রতিভা সম্পন্ন মানুষ। অবহেলিত পুত্র নিজের জোরে স্বাধীন হিন্দু রাজ্যের প্রতিষ্ঠা করেছিলেন। তিনি মারাঠিদের শক্তিশালী করে এক ঐক্যবদ্ধ জাতিতে পরিণত করেছিলেন। তাঁর শাসননীতির লক্ষ্য ছিল ন্যায়পরায়ণতা ও উদারতা।

 

Shivaji Jayanti Shivaji jayanti : শিবাজীর মৃত্যু

ধীরে ধীরে শিবাজীর স্বাস্থ্যের অবনতি হতে শুরু করেছিল। এমনকি তিন সপ্তাহ ধরে তিনি জ্বরে আক্রান্ত ছিলেন। অবশেষে ১৬৮০ সালে ৩ রা এপ্রিল মাত্র ৫০ বছর বয়সে তিনি মৃত্যুবরণ করেন।

আরও পড়ুন….ফের বাংলার নক্ষত্রপতন, প্রয়াত ফুটবলার সুরজিৎ সেনগুপ্ত, শোকাহত মুখ্যমন্ত্রী

আরও পড়ুন….Bihar : অগ্নিদগ্ধ পরিস্থিতি! বিহারের মধুবনী স্টেশনে দাঁড়িয়ে থাকা ফাঁকা ট্রেনে ভয়াবহ আগুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Back to top button