fbpx

Shreya Ghoshal: বলিউডে বিশাল নাম-ডাক, সুরের রানি সে! দেখুন তো চিনতে পারছেন এই ছোট্ট গায়িকাকে?

প্রত্যুষা সরকার, কলকাতা: গান শুনতে কে না ভালবাসে। গান হল এমন একটা জিনিস যা সুখে দঃখে সর্বদাই মানুষের সঙ্গে থাকে। বর্তমানে একাধিক শিল্পী রয়েছে যাদের গান মুগ্ধ করে সাধারণ মানুষকে। তাঁদের মধ্যেই একজন হলেন শ্রেয়া ঘোষাল ( Shreya Ghoshal )। ভারতের অন্যতম জনপ্রিয় গায়িকা তিনি। তাঁর গলায় একাধিক গান মন্ত্রমুগ্ধ করেছে শ্রোতাদের। তবে তাঁর এই সাফল্যের পিছনেও আছে একটি গল্প। জানেন কী সগ্রেয়ার জীবনের এই অজানা গল্প?

পশ্চিমবঙ্গের মুর্শিদাবাদে জন্মগ্রহণ করেন শ্রেয়া ( Shreya Ghoshal )। তবে ছোট থেকে তাঁর বেড়ে ওঠা ছিল রাজস্থানের কোটার নিকটবর্তী রাওয়াতভাতার নামক একটি জায়গায়। ছোট থেকেই গানকে ভালবাসতেন তিনি। ইচ্ছে ছিল গানকে কেন্দ্র করেই বড় হয়ে ওঠার। মাত্র চার বছর বয়স থেকেই শাস্ত্রীয় সংগীতের তালিম নিয়েছিলেন শ্রেয়া। ছোট থেকেই লতা মঙ্গেশকরের অন্ধ ভক্ত তিনি। তাই ছোট থেকেই লতা মঙ্গেশকরের গান গায়তেই বেশি পছন্দ করতেন শ্রেয়া।

img 20220904 164248

১৯৯৯ সালে জি টিভির জনপ্রিয় রিয়ালিটি শো ‘সারেগামা’তে প্রতিযোগী হয়ে এসেছিলেন শ্রেয়া ( Shreya Ghoshal ), তখন তাঁর বয়স ছিল মাত্র ১৪ বছর। এই শোয়ের মাধ্যমেই প্রথমবারের জন্য টিভির পর্দায় দেখা যায় শ্রেয়া ঘোষালকে। সেই বছর “সারেগামার” বিজয়ী হয় শ্রেয়া। সেই শোতে তাঁর গান এবং সুরেলা কন্ঠ মন্ত্রমুগ্ধ করেছিল সারা ভারতের মানুষকে। সম্প্রতি সোশ্যাল মিডিয়ায় ভাইরাল হচ্ছে এই শোয়ের সেমিফাইনালে শ্রেয়ার উপস্থাপনা করা একটি গান।

img 20220904 164136

সেমিফাইনালের বিশেষ অতিথি হিসেবে এসেছিলেন ঊষা খান্না এবং শাবির খান। এত বড় বড় জনপ্রিয় ব্যক্তিদের সামনে তিনি নির্দ্বিধায় এবং সাবলীলতার সাথে এই গানটি গেছিলেন। এটি ছিল ঊষা মঙ্গেশকরের গাওয়া একটি জনপ্রিয় রাজস্থানী লোকগান ( Shreya Ghoshal )। গান শেষে শো এর সঞ্চালক সনু নিগাম তাকে জিজ্ঞাসা করেন, যে “তোমার মাতৃভাষা বাংলা তাও তুমি রাজস্থানী গান গাইছো কেন”? তখন শ্রেয়া বলে যে ভারতের “প্রতিটি ভাষাই তার কাছে খুব প্রিয়।”

img 20220904 164325

জি টিভির এই প্রতিযোগিতায় চ্যাম্পিয়ন হওয়ার পর থেকে আর পিছন ফিরে তাকাতে হয়নি তাকে। তারপরেই সঞ্জয় লীলা বনসালির পরিচালিত ‘ দেবদাস ‘ সিনেমায় প্রথম প্লেব্যাক সিঙ্গার হিসাবে গান গাওয়ার সুযোগ পান শ্রেয়া ( Shreya Ghoshal )। সেখানে ‘বৈরি পিয়া’, ‘ঢোলা রে’, ‘মোরে পিয়া’ গান গেয়ে এতটাই জনপ্রিয়তা অর্জন করে যে ১৮ বছর বয়সে সেরা গায়িকা হিসেবে জাতীয় চলচ্চিত্র পুরস্কার পান। তিনি। তারপর থেকেই একাধিক ভাষায় একাধিক গান গেয়ে ভারতবর্ষের প্রতিটি মানুষকে মুগ্ধ করছেন শ্রেয়া।

google-news-icon

লেটেস্ট খবর