fbpx

Soumitrisha Kundu: কপালে চন্দন, হাতে জুঁইয়ের মালা! বিয়ের সাজে নীলাম্বরী মিঠাই

নীলাম্বরী রূপে যেন ঢেউ খেলছে সমস্ত শরীরে। রুপে অপরূপা সুন্দরী তিনি। মায়াবী লুকে ধরা দিলেন সৌমিতৃষা

মিঠাই’ বাংলা ধারাবাহিকে, যার খ্যাতি শীর্ষে। মিষ্টি ভালোবাসে না, এমন মানুষ যেমন নেই তেমন মিঠাই কে পছন্দ করে না এমন মানুষ বিরল। এই ‘মিঠাই’ চরিত্রে যিনি প্রাণ দিয়েছেন তিনি সৌমিতৃষা কুন্ডু। গুরুদক্ষিণা ধারাবাহিকে খল চরিত্র দিয়ে আবির্ভাব হলেও সৌমির মতো মিষ্টি মেয়েকে বেশি দিন খল চরিত্রে অভিনয় করতে হয়নি। ‘কনে বৌ’ ধারাবাহিকে প্রধান চরিত্রে অভিনয় করেন। আর তারপরেই জী-র নজরে আসেন। তখনই জীবন বদলাতে শুরু করে। সৌমিতৃষা সমস্ত সফলতা ‘মিঠাই’কে ঘিরে। কিন্তু এবার পর্দার মিঠাইকে দেখা গেল অন্যরূপে। নীলাম্বরী রূপে যেন ঢেউ খেলছে সমস্ত শরীরে। রুপে অপরূপা সুন্দরী তিনি।

গাঢ় নীল রঙের শাড়ি, এলোচুলের ঢল নেমেছে পিঠ বেয়ে। কপালে চন্দনের কলকা, রূপোলি গয়নার সাজে যেন মায়াবী দেখতে লাগছে সৌমিতৃষাকে। ‘জিয়া জ্বলে জান জ্বলে’ গানে যেন রূপের আগুন জ্বালাতে তাঁর আর্বিভাব। হাসির চমকে, চোখের ভঙ্গিতে মুগ্ধ হবেন দর্শক। হাতে রয়েছে জুঁইয়ের মালা। ক্যামেরায় নানা রকম ভঙ্গীতে বন্দিনী হলেন সৌমিতৃষা। রূপের ঝলকানিতে শত্রুও প্রেমে পড়তে বাধ্য। ধারাবাহিকের থেকে সম্পূর্ণ ভিন্ন সাজে ধরা পড়েছেন অভিনেত্রী। শ্যুটিংয়ের বাইরে মিঠাই বেশিরভাগ ওয়েস্টার্ন পোশাক পরেন। তবে নীলাম্বরী রূপসীকে দেখে মুগ্ধ হয়েছেন দর্শক। কী বলছেন তারা?


সৌমিতৃষা নিজের সোশ্যাল মিডিয়া হ্যান্ডেলে নিজের এই ভিডিও দিতেই কমেন্টের বন্যা বয়ে গেল। সকলেই মুগ্ধ তার নীলাম্বরী রূপে। প্রশংসায় পঞ্চমুখ মিঠাই ভক্তরা। এই সারপ্রাইজ পেয়ে তারা ভীষণই খুলি। কেউ বললেন, ‘কাজল নয়না হরিণী’, কেউ বলছেন,’ কোনো এক গল্পের নীল পরি’। অনেকেই বলছেন, ‘একজন কী করে এত মিষ্টি হতে পারে’। ‘মিঠাই’ ধারাবাহিকের মাধ্যমে মানুষের মনের মণিকোঠায় ঠাঁই পেয়েছেন সৌমিতৃষা। দর্শক তাকে মাথায় করে রাখে। বাংলার সুপারস্টার দেব বলছেন, জনপ্রিয়তায় মিঠাই তাঁকেও ছাপিয়ে গেছে। কথাটা অবশ্য ভুল বলেননি দেব।

google-news-icon

লেটেস্ট খবর