fbpx

Sreeelekha Mitra: সারারাত জুড়ে চলল জন্মদিনের পার্টি, আনন্দের মাঝেও বাবা-মা’য়ের স্মৃতিতে আবেগঘন শ্রীলেখা

সারারাত জন্মদিনে বন্ধুদের সঙ্গে পার্টির পরও একরাশ মনকেমন বাবা-মায়ের জন্য শ্রীলেখা-র!

জয়ীতা সাহা, কলকাতা: জীবনের প্রায় পঞ্চাশটি বসন্ত পার। এতগুলি বছরে ঘটে গেছে কত উল্থান, পতন। আজ জন্মদিন উপলক্ষে বন্ধুদের নিয়ে রাত বারোটায় হল সেলিব্রেশন। সবকিছুর মধ্যেও ছিল একটা বিস্বাদ। তাঁর জন্মদিন উপলক্ষে রাত বারোটায় লাইভে থাকবেন এমনটাই কথা দিয়েছিলেন অভিনেত্রী শ্রীলেখা মিত্র। কথা রেখেছেন। তবে এই প্রথম বারের জন্মদিনে অনুপস্থিত তাঁর বাবা। অবশ্য তারাদের দেশ থেকে নিশ্চয় দেখছেন তিনি। রাত বারোটার সেলিব্রেশনে কী কী হল এবং আজকের সারাদিনে জন্মদিনে কী কী প্ল্যান রয়েছে তাঁর, চলুন জেনে নেওয়া যাক।

সারারাত একগুচ্ছ বন্ধুদের সঙ্গে প্রচুর খাওয়াদাওয়া আনন্দের পর ক্লান্ত তিনি। এ তো গেল রাত বারোটার সেলিব্রেশনের কথা। তবে আজকের সারাদিনের প্রসঙ্গ উঠতেই অভিনেত্রী জানিয়েছেন,” আজ দুপুরের সঙ্গী হতে চলেছেন ইন্ডাস্ট্রির এক পুরনো বান্ধবী। দেখা-সাক্ষাৎ করতে আসছে অনন্যা চ্যাটার্জী। বাইরে কোথাও নয় বাড়িতেই আড্ডা হবে।” তিনি আরও বলেন, বিকেলবেলা রয়েছে একটি বড় চমক। এস আর এফ টি আই কমিটির তরফ থেকে পরিচালক আদিত্য বিক্রম সেনগুপ্তর “ওয়ান্স আপন এ টাইম ইন ক্যালকাটা”-র স্পেশাল স্ক্রিনিং-র আয়োজন রাখা হয়েছে তাঁর জন্মদিনের উদ্দেশ্যে। সন্ধ্যে পার্টিতে থাকছে ফ্যামিলি ডিনারও।img 20220830 143217

একগুচ্ছ বন্ধুবান্ধব নিয়ে যখন সেলিব্রেশন হয়েছে তখন উপহারের তালিকাটাও নিশ্চয় বেশ বড়ই হবে। অভিনেত্রী কথায়,” আমার কাছে সব থেকে বড় পুরস্কার ভালোবাসা এবং সঙ্গ, তবে এবার উপরি পাওনা ছিল বন্ধু, আপনজনদের উপস্থিতি। বাবাকে ছাড়া এটা আমার প্রথম জন্মদিন,তাই খুব বেশি কিছু করতে মন চাইনি।” তবে এসবের মধ্যেও উপহার হিসেবে পেয়েছেন সুন্দর লেখা, বিদেশ থেকে পাওয়া প্রসাধনী আর কেক তো আছেই। তবুও সবটাই জমকালো নয় সাধারণ রাখতে চান তিনি।img 20220830 143103ছোটবেলায় সেই প্রতিদিনের স্কুল ইউনিফর্ম পরা নয় সেদিন। বরং নতুন জামা পড়ে হইহই করে জন্মদিনে মেতে ওঠা। আজ সবই অতীত। কাছের মানুষ গুলোও নেই আজ। তবে এসবের মধ্যেও কিছু তো নতুন নিশ্চয় যোগ হয়েছে, এ প্রসঙ্গ উঠতেই অভিনেত্রীর বক্তব্য,” যোগ হয়নি বরং বিয়োগ হয়েছে। ছোট্টবেলায় মা-বাবার সঙ্গে জন্মদিন উদযাপন, সেদিন আর স্কুলের ইউনিফর্ম নয় বরং রঙিন পোশাকে স্কুলে গিয়ে সকলের মাঝে স্পেশাল হয়ে ওঠা…তাই আজ বাবা-মাকে বড় মিস করছি।” তবে অনুরাগীদের উদ্দেশ্যে তিনি সকলকে সত থাকার বার্তা দিয়েছেন। তিনি জানিয়েছেন,” আগামী দিনে নতুন প্রজন্মকে একটা সুন্দর পৃথিবী উপহার দিতে বদ্ধপরিকর মানুষরা যেন নিজের শর্তে বাঁচতে পারেন।” ভালো থাকুন শ্রীলেখা মিত্র। আগামী জন্মদিন আরও রঙিন হোক আপনার।

google-news-icon

লেটেস্ট খবর