fbpx

Sreelekha Mitra: লাবণ্যময়ী চেহারা তবু নায়িকা সুযোগ হাতছাড়া! প্রসেনজিৎয়ের সঙ্গে ছবি দিয়ে কী বললেন শ্রীলেখা?

টলিউডের বিতর্কিত অভিনেত্রী হিসেবেই বর্তমানে তালিকার শীর্ষে রয়েছেন শ্রীলেখা মিত্র। কেন তিনি বিতর্কিত? কেন তিনি ঠোঁটকাটা? কেন বারবার তাকে নিয়ে ওঠে ঝড়? টলিউড থেকে দূরে থেকেও সবসময় প্রাসঙ্গিক কি করে থাকেন তিনি? এই নিয়ে উত্তাল হয় টলিউড। তবে অভিনেত্রী শ্রীলেখা এসব নিয়ে রাখ ঢাক রাখেন না। কেন তার রাগ ক্ষোভ, কেন তিনি বার বার ফিরে যেতে চান অতীতের ফেলে আসা দিনগুলোয়, তার ব্যাপারে প্রায়শই স্পষ্ট বার্তা দেন। আজও স্মৃতির পাতা থেকে উড়ে এল বিতর্ক। কি সেটি জানেন।

প্রথম দৃশ্য ২০২০ , সুশান্ত সিং রাজপুতের অস্বাভাবিক মৃত্যু। তারপর বলিউড কাঁপতে শুরু করল নেপোটিজম বয়কটের হুংকারে। তখন বাংলার কঙ্গনা রানাউত শ্রীলেখা মিত্রর দেওয়া একটি ভিডিয়োতে কার্যত তোলপাড় হয়েছিল টলিউড ও। টলিউডের দাদা-দিদিদের পড়েছিল মাথায় হাত। সোজাসুজি অভিযোগ তুলেছিলেন টলিউডের রাঘব-বোয়ালদের বিরুদ্ধে। যোগ্যতা থাকা সত্ত্বেও স্বজন পোষণের জন্য বঞ্চনার অভিযোগ এনেছিলেন তিনি। প্রথম আঙুল উঠেছিল টলিউড ইন্ড্রাস্ট্রির বুম্বা দা ওরফে প্রসেনজিৎয়ের দিকে।

img 20220919 134432

দ্বিতীয় ও সাম্প্রতিক কালের দৃশ্য,২০২২ এর রবিবারের এক ম্লান দুপুরে স্মৃতির সরণি বেয়ে হাঁটলেন শ্রীলেখা। তাঁর টাইমলাইনে ভেসে উঠল তরুণী বয়সের ছবি। পাশে একজন সুদর্শন নায়ক। কে তিনি? প্রসেনজিৎ চট্টোপাধ্যায়। হঠাৎ দেখলে চেনা যায় না শ্রীলেখাকেও।লাবণ্যময়ী মুখ, ছিমছাম শরীর, যুবতী নায়িকার সৌন্দর্যের সবকটি লক্ষণ বেশ স্পষ্ট। সেই ছবি দিয়ে নিজেই ফেসবুকে লিখলেন, ‘তখন আমাকে দেখতে সুন্দর ছিল, তাই না? ওঁকেই (প্রসেনজিৎ) বা কেমন দেখাচ্ছে?’
img 20220919 134539

ছবির নাম অন্নদাতা। ঋতুপর্ণা, রচনা, দেবশ্রী নয়, শ্রীলেখা মিত্র ছবির নায়িকা। দুজনেই তখন তারুণ্যে উজ্জ্বল। শ্রীলেখা নিজেই জানিয়েছেন, ছবিগুলি প্রসেনজিতের সঙ্গে ‘অন্নদাতা’য় কাজ করার সময় তোলা। এসকে মুভিজ প্রযোজিত ছবির নায়িকা তিনি। বক্স অফিসেও চমৎকার হিট। আর তারপর অন্ধকার। সে অর্থে আর নায়িকা চরিত্রে দেখা গেল না তাকে। হঠাৎ কেন এই পরিবর্তন হল। কে নাড়ল ভিতরে কলকাঠি এই নিয়ে বারংবার প্রশ্ন তুলেছেন তিনি। এদিন ও তার ব্যতিক্রম হল না। বিতর্কিত’ ভিডিয়োর প্রসঙ্গ তুলে তিনি বললেন,’মনে হল, দর্শকের কাছে জানতে চাই যে প্রসেনজিতের নায়িকা হিসেবে আমাকে কেমন লাগছে? সেই ভিডিয়োয় বলা স্বজনপোষণ নিয়ে কথাগুলো কি সবটা ফেলে দেওয়ার মতো? নাকি যুক্তি আছে? সেটার বিচারক দর্শক।

হঠাৎ স্মৃতি হাতড়ে হঠাৎ এসব কেন বললেন শ্রীলেখা। তার কথায়, ‘আমার ভাইয়ের স্ত্রী ছবিগুলি আজ পাঠাল। দেখেই বেশ কিছু প্রশ্ন জেগে উঠল মনে। তখন আমার ওজন বেশ খানিকটা কম ছিল। দেখতে সুন্দর ছিলাম।অন্নদাতা সুপারডুপার হিট হওয়ার পরেও আমার আর প্রসেনজিতের সঙ্গে ছবি করা হল না। বা সেই অর্থে বাণিজ্যিক ছবির নায়িকা হওয়ার সুযোগ পেলাম না।’ তবে তিনি শেষে এও জানিয়েছেন,আক্ষেপ আর নেই। তিনি বললেন, ‘এখন আর আমার কোনও রাগ-অভিমান নেই। বয়স বেড়েছে। পরিণত হয়েছি। এখন আর পুরনো কথা নিয়ে হা-হুতাশ করে লাভ নেই’।

google-news-icon

লেটেস্ট খবর