fbpx

Neet Exam: জাতীয় স্তরে ফের উজ্জ্বল বাংলার মুখ! Neet পরীক্ষায় তৃতীয় স্থান দখল বঙ্গতনয়ার

সর্বভারতীয় মেডিক্যাল প্রবেশিকা পরীক্ষায় বাংলায় তৃতীয় এবং গোটা দেশে ২২ তম স্থান অধিকার করেছে দেবাঙ্কিতা বেরা।

আবারও সর্বভারতীয় স্তরে এগিয়ে বাংলা। গত ৭ সেপ্টেম্বর প্রকাশিত সর্বভারতীয় মেডিক্যাল প্রবেশিকা পরীক্ষা অর্থাৎ নিট এর ফলাফল ( Neet Exam 2022 Result ) । এই পরীক্ষাতেই নজর কাড়া সাফল্য দেখা গিয়েছে বাংলায়। গোটা দেশ জুড়ে ২২ তম স্থান এবং বাংলায় তৃতীয় স্থান দখল করার জন্য ইতিমধ্যেই গোটা দেশের চর্চার কেন্দ্র হয়ে উঠেছে পূর্ব মেদিনীপুর জেলার মহিষাদলের ছাত্রী দেবাঙ্কিতা বেরা।

গোটা দেশের চর্চা এখন একজনই, দেবাঙ্কিতা বেরা। গোটা দেশ জুড়ে সর্বভারতীয় মেডিক্যাল প্রবেশিকা পরীক্ষায় ২২ তম স্থান দখল করা কি মুখের কথা! যদিও নিজের পরীক্ষার ফলাফল নিয়ে অনেক খুশি দেবাঙ্কিতা। ছোট থেকেই চিকিৎসক হওয়ার স্বপ্ন ছিল মহিষাদলের এই ছাত্রীর। অবশেষে তার এই স্বপ্ন পূরণ হতে চলেছে। তাই আনন্দ আর ধরে রাখতে পারছেন না দেবাঙ্কিতা। নিজের এই অভাবনীয় সাফল্য দেখে তিনি বলেছেন,“আমার বরাবরই চিকিৎসক হওয়ার স্বপ্ন ছিল, সেই লক্ষ্যেই নিয়মিত প্রস্তুতি নিতাম”। দেবাঙ্কিতার কথায় তিনি কোনও দিন ফলাফলের চিন্তা করেননি।

img 20220909 170712

বাংলা মাধ্যমেই পড়াশোনো করেছেন দেবাঙ্কিতা। বরাবরই কৃতি ছাত্রী ছিলেন তিনি। ২০২০ সালে মাধ্যমিকে গোটা রাজ্যে একাদশ স্থান দখল করেছিলেন তিনি। এরপর ২০২২ সালে উচ্চ মাধ্যমিকেও সেরা ১২ জনের মধ্যে ঠাঁই পেয়েছিলেন দেবাঙ্কিতা। মাধ্যমিক পরীক্ষার পর থেকেই নাকি নিট এর জন্য প্রস্তুতি নিচ্ছিলেন তিনি। মেয়ের এই সাফল্যে বেশ খুশি দেবাঙ্কিতার বাবা মা। প্রসঙ্গত তার বাবা এবং মা দু’জনই শিক্ষকতার সঙ্গে যুক্ত। দেবাঙ্কিতার বাবা দেবাশিস বেরা জানিয়েছেন,“পরবর্তীকালে আমার মেয়ে একজন সফল চিকিৎসক হয়ে উঠুক সেটাই চাই”।

জানা গিয়েছে, পরবর্তীকালে দিল্লিতে গিয়ে পড়াশুনা করতে চলেছেন দেবাঙ্কিতা। রাজ্যের মধ্যে তৃতীয় স্থান অধিকার করায় বিভিন্ন জায়গা থেকে অনেক শুভেচ্ছা বার্তা আসছে বলে জানিয়েছিলেন দেবাঙ্কিতার বাবা। নিজের এই অভাবনীয় সাফল্যে দেবাঙ্কিতা জানান,“ফলাফলের চিন্তা কখনই করি নি, এবার একজন চিকিৎসক হয়ে মানুষের সেবায় নিজেকে নিয়োজিত করতে পারব।”

 

google-news-icon

লেটেস্ট খবর