fbpx

Sudipa Chatterjee: “তিনি কে যে তাঁর কথা শুনব?” ডেলিভারি বয় বিতর্কে অরিত্র’কে এক হাত নিলেন রান্নাঘরের সুদীপা

“তিনি কে যে তাঁর কথা শুনে আমায় চলতে হবে ?” ডেলিভারি বয় বিতর্কে টলিউডের তরুণ অভিনেতাকে পাল্টা তোপ সুদীপা’র

মন্টি শীল, কলকাতা: সম্প্রতি সোশ্যাল মিডিয়াতে দেখা গিয়েছে, টেলিভিশন জগতের নামীদামি তারকারা বিভিন্ন সময়ে বিভিন্ন কারণে আলোচনার কেন্দ্রবিন্দুতে উঠে এসেছেন। যদিও নেটনাগরিকদের এই আলোচনার অন্যতম কারণ তারকাদের ব্যক্তিগত জীবন কেন্দ্রীক। আর ঠিক এমনই এক আলোচনার কেন্দ্রবিন্দুতে এসেছেন টেলিভিশন জগতের জনপ্রিয় সঞ্চালিকা সুদীপা চট্টোপাধ্যায় ( Sudipa Chatterjee )। সূত্র অনুযায়ী, জনপ্রিয় এই সঞ্চালিকা একজন ডেলিভারি বয় সংক্রান্ত বিষয়কে কেন্দ্র করে বিতর্কে জড়িয়ে পড়েন। এমনকী তিনি তাঁর নিজস্ব সোশ্যাল মিডিয়া হ্যান্ডেলেও এই সংক্রান্ত বিষয়ে একটি দীর্ঘ পোস্ট করেন।

যেখানে সুদীপা চট্টোপাধ্যায় ( Sudipa Chatterjee ) লিখেছিলেন, “আমি শুধু জানতে চাই একজন ডেলিভারি বয় কেন ফোন না করে গন্তব্যে পৌঁছাতে পারেন না? ফোন করে তাঁরা কেন বলেন, ‘আমি আসছি গেটটা খুলুন।’” শুধু তাই নয় এদিনের পোস্টে রান্নাঘরের সঞ্চালিকা লিখেছেন, ‘তিনি কি বাড়ির দারোয়ান যে গেট খুলে দাঁড়াবেন?’ সোশ্যাল মিডিয়াতে এই বিষয়টি সামনে আসা মাত্রই তা মুহূর্তের মধ্যে ভাইরাল হয়ে গিয়েছে। এমনকী সঞ্চালিকার এই পোস্ট দেখে রীতিমত নিন্দায় সরব হয়েছেন নেটনাগরিকরা। শুধু তাই নয়, সুদীপা চট্টোপাধ্যায়ের এই পোস্টকে কেন্দ্র করে ইতিমধ্যেই ট্রোল করতে শুরু করেছেন তাঁরা।

29c22

তবে শুধু মাত্র নেটনাগরিকরাই নন, রান্নাঘরের সঞ্চালিকা সুদীপা চট্টোপাধ্যায়ের এই পোস্ট দেখার পর নিন্দায় সরব হন টলিউড ফিল্ম ইন্ডাস্ট্রির জনপ্রিয় অভিনেতা অরিত্র দত্ত বণিক ( Aritra Dutta Banik )। সোশ্যাল মিডিয়াতে তিনি লিখেছেন, “জনপ্রিয় অভিনেত্রী তথা সঞ্চালিকার কাছ থেকে এমন মন্তব্য একেবারেই কাম্য নয়।” যদিও টলিপাড়ায় এই তরুণ অভিনেতার করা মন্তব্যের উত্তর দিতে দেরি করেননি সুদীপা চট্টোপাধ্যায়। এক সাক্ষাৎকারে তাঁর করা মন্তব্য অনুযায়ী, ‘তিনি যতদূর জানেন, অভিনেতা ছোট থাকাকালীন ট্রাফিক পুলিশ গাড়ি আটকালে তাঁর বাবা-মা বলতেন ভিতরে অরিত্র রয়েছে।’


শুধু তাই নয়, অভিনেতা অরিত্র দত্ত বণিকের করা মন্তব্যের পরিপ্রেক্ষিতে সুদীপা বলেছেন, ‘তিনি কে যে তাঁর কথা শুনে চলতে হবে? তাঁরা কোনও দিন আগের প্রজন্মের সম্পর্কে এমন মন্তব্য করার সাহস পাননি।’ অপরদিকে সঞ্চালিকা তাঁর করা পোস্ট সম্পর্কে বলেছেন, ‘পূর্ববর্তী সময়ে পোস্টমাস্টারদের কাছে আগের মতো আধুনিক প্রযুক্তি ছিল না। তা সত্ত্বেও তাঁরা ঠিক ঠিকানা খুঁজে বের করতেন। তবে ডেলিভারি বয়রা কেন পারবেন না। তিনি কেবল মজার ছলে সোশ্যাল মিডিয়াতে এই পোস্টটি করেছিলেন। কাউকে অপমানিত করার উদ্দেশ্য ছিল না তাঁর।’ বলে রাখা ভাল, এর আগেও বিভিন্ন বিষয় নিয়ে সোশ্যাল মিডিয়াতে নেটিজেনদের কটূক্তির শিকার হয়েছিলেন সুদীপা চট্টোপাধ্যায়। কিন্তু এই বিষয়টি পূর্বে ঘটে যাওয়া সমস্তকিছুকে ছাপিয়ে গিয়েছে তা সোশ্যাল মিডিয়াতে নজর রাখলেই স্পষ্ট হয়ে যাবে।

google-news-icon

লেটেস্ট খবর