fbpx
Thursday, October 6, 2022

Sonu Nigam birthday: মাত্র চার বছরে গানের দুনিয়ায় পা! লাগাতার ব্যর্থতার মধ্যেও ‘বর্ডারের’ এই গানই মোড় ঘুরিয়ে ছিল জীবনে

জয়িতা চৌধুরি, কলকাতাঃ মাত্র চার বছর বয়সে গানের দুনিয়ায় পা রেখেছিলেন তিনি। তখন কেই বা জানত এই ছোট্ট ছেলেটি বড় হয়ে একদিন ভারতবর্ষের অন্যতম সেরা গায়ক হবেন। চার বছর বয়সে বাবা আগাম কুমারের সঙ্গে ‘কেয়া হুয়া তেরা ওয়াদা’ এবং ‘কসম ইরাদা’ গান গেয়ে চমকে দিয়েছিলেন শ্রোতাদের। এরপর থেকেই বাবার সঙ্গে ছোট-বড় অনুষ্ঠানে গান গাইতেন বলিউডের জনপ্রিয় গায়ক সোনু নিগম ( Sonu Nigam )।

মাত্র ১৯ বছর বয়সে বলিউডে পদার্পণ করেন তিনি। তাঁর গানের হাতেখরি সঙ্গীত শিল্পী ওস্তাদ গোলাম মোস্তাফা খানের কাছে শাস্ত্রীয় সংগীতে। বলিউডে তাঁর প্রথম কাজ টি-সিরিজের কর্ণধার গুলশন কুমারের হাত ধরে। ‘রফি কি ইয়াদে’ নামক একটি অ্যালবামে মহম্মদ রফির গানগুলিকেই গাওয়ানো হয় তাঁকে দিয়ে। প্রথম দিকে বলিউডে সফরের পথ মসৃণ না হলেও এই অ্যালবামের পর আর পিছনে ফিরে তাকাতে হয়নি সোনুকে। বলিউড ছাড়াও মারাঠি, তামিল, তেলেগু, মালায়লাম, কন্নড়, বাংলা, পাঞ্জাবি, ওড়িয়া, নেপালি সহ একাধিক ভাষায় গান গেয়েছেন কিংবতন্তি এই গায়ক।

sonu nigam' star
১৯৯২ সালে জনম সিনেমায় প্রথম গান গাওয়ার সুজোগ পান গায়ক। যদিও সিনেমাটি মুক্তি পায়নি। এরপর তিনি ‘মুকাবলা’, ‘মেহেরবান’, সবনম, আগ, খুদর, হালচাল, স্টান্টম্যান, রামজানে, গদ্দর ইত্যাদি বি ও সি গ্রেডেড ছবিগুলিতে গান করেন। ১৯৯৫ সা রে গা মা পা-য় সঞ্চালনার সুযোগও পান তিনি। ‘বেওফা সনম’ হিন্দি ছবিতে ‘আচ্ছা সিলা দিয়া তুমে মেরে প্যায়ার কা’ গানটি সোনুর বলিউডের কেরিয়ারে অন্যতম গুরুত্বপূর্ণ মাইল ফলক। গোটা দেশের মানুষের কাছে পরিচিত মুখ হয়ে ওঠেন তিনি। আর তারপরই একের পর এক ব্লকবাস্টার!

sonu nigam' kid
‘বর্ডার’ ছবিতে অনু মালিকের সুরে ‘সন্দেশে আতে হ্যায়’, ‘পরদেশ’ ছবির ‘ইয়ে দিল দিওয়ানা’ আজও দর্শকের অন্যতম পছন্দের প্লেলিস্ট। নিজে কতকগুলি অ্যালবামও বের করেন সোনু। যার মধ্যে সুপার হিটহগুলি হল ক্লাসিক্যালি মাইল্ড’, ‘চন্দা কি ডোলি’। এভাবেই সোনুর বলিউড যাত্রা শুরু আর বাকিটা ইতিহাস। আর গায়কের ৪৯তম জন্মদিন। জীবনে অনেকটা সফলতার পথ অতিক্রম করে এসেছেন সুরের রাজা। তাঁর গানে মুগ্ধ হয়েছেন স্বয়ং সুর সম্রজ্ঞী লতা মঙ্গেশকর।

একবার সোনু নিগম তাঁর জন্মদিনে ফেসবুক ফ্যানদের সঙ্গে জ্যাকসনের প্রতি শ্রদ্ধা নিবেদন করেন। তাঁর এই গানটি দ্য বিট অব আয়ার হার্টস নামক বিশ্বের ১৮টি গানের সংকলনে স্থান পেয়েছে। তিনি একবার ব্রিটনি স্পিয়ার্সের সঙ্গে “আই ওয়ানা গো” গানটিতেও কাজ করেন।

google-news-icon

লেটেস্ট খবর