fbpx

নারীদের জন্য তালিবান-আরএসএস একই! মন্তব্য দিগ্বিজয়ের

আফগানিস্তানের ক্ষমতায় এখন তালিবান। তাই সেখানকার জনতা বিশেষ করে মেয়েদের জীবন নিয়ে উদ্বিগ্ন সারা বিশ্ব। আর এই নিয়েই আবারো ইসলামিক উগ্রপন্থাকে বাকি ধর্মীয় উগ্রপন্থার থেকে আলাদা করে দেখা উচিত কিনা তা নিয়ে বিতর্ক শুরু হয়েছে। একদিকে যেমন ইসলামোফোবিয়া চরমে পৌঁছচ্ছে তেমনি ধর্মনিরপেক্ষ মানুষ সকল ধর্মীয় কট্টরপন্থীদের একই চোখে দেখার পক্ষ নিয়ে আওয়াজ তুলছেন। ভারতও তার ব্যতিক্রম নয়। ইতিপূর্বেই আরএসএস ও তালিবানকে একই বলে বিতর্কে জড়িয়েছেন কবি ও গীতিকার জাভেদ আখতার। এবার একই ধরনের মন্তব্য করলেন মধ্যপ্রদেশের কংগ্রেস নেতা দিগ্বিজয় সিং।

congress leader,digvijay singh commented,about taliban,about rss,in Afghanistan,কংগ্রেসের নেতা,দিগ্বিজয় সিংয়ের মন্তব্য,তালিবানের ব্যাপারে,আফগানিস্তানে

এদিন একটি টুইট করে দিগ্বিজয় বলেন, “তালিবানেরা বলে মন্ত্রিসভায় কোনো মহিলা মন্ত্রী থাকবে না। অন্যদিকে আরএসএস প্রধান মোহন ভাগবত বলেন, মেয়েদের ঘরের কাজ করা উচিত।” যে নিয়ে আবারো বিতর্ক চরমে পৌঁছেছে। অনেকেই দিগ্বিজয়কে হিন্দু ফোবিক বলে আখ্যা দিয়েছেন। অপরদিকে তালিবানি নৃশংসতার সাথে হিন্দুত্ববাদের তুলনা টানায় দিগ্বিজয়ের ইসলাম জঙ্গিবাদের প্রতি সহানুভূতিই প্রকাশ পায় বলে মনে করছেন অনেকে। এনিয়ে এর আগেই মোহন ভাগবতের সাথে টুইটারে বিতণ্ডায় জড়িয়েছেন দিগ্বিজয়।

congress leader,digvijay singh commented,about taliban,about rss,in Afghanistan,কংগ্রেসের নেতা,দিগ্বিজয় সিংয়ের মন্তব্য,তালিবানের ব্যাপারে,আফগানিস্তানে

এদিনের টুইটে প্রধানমন্ত্রী মোদিকে সরাসরি প্রশ্ন করেন দিগ্বিজয়। তিনি বলেন, “তালিবানের সরকারে তিনজন রাষ্ট্রপুঞ্জ ঘোষিত জঙ্গি রয়েছে। এহেন একটি সরকারকে ভারত মান্যতা দেবে কিনা তা স্পষ্ট করুক সরকার।” ইতিমধ্যেই তালিবান সরকারের পাশে এসে দাঁড়িয়েছে পাকিস্তান, রাশিয়া, চিনের মত দেশ। উল্লেখ্য ক্ষমতায় এসে নারী স্বাধীনতা লাটে তুলেছে তারা। বোরখা পরা বাধ্যতা মূলক করার পাশাপাশি নানা মধ্যযুগীয় ফতোয়া দিয়ে আফগান নারীদের জীবন দুর্বিষহ করে তুলেছে তারা।

google-news-icon

লেটেস্ট খবর