fbpx
Monday, October 3, 2022

Taliban: ইউটিউবারের উপর পাশবিক অত্যাচার, ‘মজা’র জন্য ভিডিয়ো, দাবি তালিবান শাসকের

আফগানিস্তানে চলছে তালিবান রাজ। মসনদে বসার পর থেকেই যেন এক প্রকার স্বৈরতন্ত্র শুরু হয়েছে গোটা দেশে। আফগান জুড়ে লাঘু হয়েছে শরিয়া আইন। আর ইসলামপন্থী এই আইনের হাত ধরেই দেশ জুড়ে চলছে শাসন। এক কালো অন্ধকারাচ্ছন্ন জগতের দিকে যেন ঠেলে দেওয়া হয়েছে সেই দেশের বাসিন্দাদের। অভিযোগ ক্ষমতা দখলের পর সুষ্ঠ ভাবে দেশ চালানোর কথা বললেও আদপে উল্টোটাই করছে তালিবানরা। সম্প্রতি, সোশ্যাল মিডিয়া জুড়ে ভাইরাল হওয়া এক ভিডিয়োতে ফুটে উঠেছে তেমনই চিত্র। 

ভিডিয়োটিতে দেখা যাচ্ছে, ইউটিউবার(YouTuber) আজমল হাকিকি এবং তার দলের উপর পাশবিক নির্যাতন চালাচ্ছে তালিবানরা। এই ভিডিয়ো ভাইরাল হতেই নিন্দার ঝড় উঠেছে গোটা বিশ্বজুড়েই। তবে এত হট্টগোলে শাসক পাত্তা দিতে নারাজ। তাঁদের দাবি, মজা করার জন্যই নাকি এই ভিডিয়ো শ্যুট করা হয়। কিন্ত নিজেদের মধ্যে চালাচালি করতে গিয়ে তা ভাইরাল হয়ে যায়।  

এদিকে ভাইরাল ভিডিয়োতে দেখা যাচ্ছে আজমল হাকিকি ও তাঁর দলের সদস্যদের রড দিয়ে বেধড়ক মারধর করছে তালিবানরা। তাঁদের ধর্মের বিরুদ্ধে কু-কথা বলার অভিযোগেই তালিবানের সরকারের জেনারেল ডিরেক্টরেট অফ ইন্টেলিজেন্স তরফে গ্রেফতার করা হয়েছিল ওই ইউটিউবার ও তাঁর সহযোগীদের। তাঁদের বিরুদ্ধে একটি ভিডিয়োতে কোরান অবমাননার অভিযোগও আনা হয়েছে। ইতিমধ্য়েই গোয়ান্দা সংস্থার টুইটার হান্ড্যাল থেকে তাঁদের উপর নির্মম অত্যাচারের সেই ভিডিয়ো প্রকাশ করা হয়েছে। তাতেই হাতে হাতকড়া পরানো অবস্থায় চার যুবককে দেখতে পাওয়া যাচ্ছে। যাদের উপরেই চালানো হয়েছে এই পাশবিক নির্যাতন। 

তালিবান গোয়েন্দা সংস্থা টুইটারে লিখেছে, “ইসলামী ব্যবস্থার অধীনে কেউ কোরানের, নবীর বা ইসলামিক পবিত্রতাকে অবমাননা বা উপহাস করার অনুমতি দেয় না। তাই এদের গ্রেফতার করা হয়েছে।” তালিবানদের অভিযোগ আজমল হাকিকির এক সহযোগী গোলাম সখী যে ভিডিয়ো বানিয়েছেন তা মারাত্মকভাবে ইসালিমক ধর্মীয় ভাবাবেঘে আঘাত হানছে। সেখানে গোলাম সখী ব্যাঙ্গাত্মকভাবে কোরানের বিভিন্ন অংশ পড়েছেন বলেও দাবি করা হয়েছে। ওই ভিডিয়ো পোস্ট করা হয়েছিল হাকিকির ইউটিউব চ্যানেলে। এদিকে এই গোলাম সখী আবার ড্রাগ নিতেন বলেও জানা গিয়েছে। বেশ কিছুদিন ধরে তিনি তাঁর মানসিক অবস্থা ঠিক ছিল না বলেও জানা গিয়েছে।

google-news-icon

লেটেস্ট খবর