fbpx

Bengali actresses: ধারাবাহিক দিয়েই অভিনয়ে হাত খড়ি, প্রথম দর্শনেই মানুষের মন কেড়েছিল যে ছোট পর্দার সুন্দরীরা

জয়িতা চৌধুরি,কলকাতাঃ দর্শকদের বিনোদন জোগাতে বাংলা চ্যানেলগুলোতে আসছে একের পর এক নতুন ধারাবাহিক। একই সঙ্গে তাল মিলিয়ে বাড়ছে নতুন অভিনেত্রীদের আনাগোনাও। এই মুহূর্তে বাংলা ধারাবাহিকের জনপ্রিয় দুটি চ্যানেল জি বাংলা ( Zee Bangla ) ও স্টার জলসা ( Star Jalsha )। টিআরপি ( TRP ) যুদ্ধ জয় ও দর্শকদের মনোরঞ্জন করার জন্য দুটি চ্যানেলেই আসছে নতুন এক ঝাঁক ধারাবাহিক। নতুন ধারাবাহিকের কোনোটিতে থাকেপুরনো মুখের নতুন সমীকরণ। কোনোটিতে আবার থাকে একদম অচেনা নতুন মুখ। তবে জীবনের প্রথম ধারাবাহিক থেকেই জনপ্রিয়তার শীর্ষে আছেন বাংলা টেলিভিশন জগতের কিছু জনপ্রিয় নায়িকা। রইল তাঁদের নাম…

solanki

সোলাঙ্কি রায়ঃ ‘ইচ্ছে নদী’ ( Icche Nodi ) ধারাবাহিকের জনপ্রিয় জুটি ছিল ‘অনুরাগ’ এবং ‘মেঘলা’। প্রথম ধারাবাহিক থেকেই সিরিয়াল্প্রেমীদের ‘ঘরের মেয়ে’ হয়ে উঠেছিলেন মেঘলা ওরফে সোলাঙ্কি রায় ( Solanki Roy )। মিষ্টি শান্ত মেয়ে মেঘলার অভিনয় ছাপ ফেলে গেছে দর্শকদের মনে। সম্প্রতি স্টার জলসায় তাঁর ধারাবাহিক ‘গাঁটছড়া’-ও জনপ্রিয়তা পেয়েছিল মারাত্বক রকম। টিআরপি ( TRP ) তালিকার শীর্ষে থাকা ‘মিঠাই’-কে সরিয়ে বেঙ্গল চ্যাম্পিয়ন হয়েছিল প্রায় ছয়বার। খড়ি আর ঋদ্ধিমান জুটি নিয়েও মাতামাতি কম হয়নি। প্রসঙ্গত, শোলাঙ্কিকে এরমধ্যে দেখা গিয়েছে বড় পরদাতেও। যিশু সেনগুপ্তর সাথে ‘বাবা বেবি ও’ সিনেমায় অভিনয় করে প্রশংসা পেয়েছেন। বেশ ভালো ব্যবসা করেছে ছবিটি বক্সঅফিসে। ২০১৪ সালে ‘কথা দিলাম’ ধারাবাহিক দিয়ে অভিনয় শুরু করেন। ‘ইচ্ছে নদী’তে তাঁর আর বিক্রমের জুটিও সকলের খুব পছন্দের ছিল। তাঁর অভিনীত ‘প্রথমা কাদম্বিনী’ও খুব জনপ্রিয় ছিল। ছোট পরদার পাশাপাশি ‘ধানবাদ ব্লুজ’, ‘পাপ’, ‘মন্টু পাইলট’-এর মতো ওয়েব সিরিজে দেখা মিলেছে শোলাঙ্কির।

rooqma

রুকমা রায়ঃ টেলি দুনিয়ায় আরও এক জনপ্রিয় নাম রুকমা রায় ( Rooqma Roy। এক সময় পার্শ্ব চরিত্রের মাধ্যমেই ব্যাপক জনপ্রিয়তা পেয়েছেন লাল কুঠির অনামিকাও। তবে ২০১৪ সালে রুকমা অভিনয় শুরু করেছিলেন মুখ্যচরিত্রে অভিনয় করার মধ্যমেই। সে বছরই আরেকটি জনপ্রিয় ধারাবাহিক ‘কিরণমালা’ –এ কিরণমালার বেশে দেখা যায় তাঁকে। এরপর কাজ করেছেন কুন্দফুলের মালায়। নায়িকার পাশাপাশি খলনায়িকার চরিত্রেও চুটিয়ে অভিনয় করেছেন তিনি। ‘প্রতিদান’ ধারারাবাহিকে খলনায়িকার চরিত্রে অভিনয় করেছেন অভিনেত্রী।

srijla

শ্রীজলা গুহঃ অভিনয়ের জগতে নতুন হলেও মডেলিং দুনিয়ার পরিচিত মুখ সৃজলা গুহা। বারবারা মোরির দেশকে সৌন্দর্যের দেশ বলা যায়। এখানকার মেয়েরা রূপে লাবণ্যেশনের জোড়িদার নবাগতা সৃজলা। হয় বিশ্বসেরা। এই দেশ থেকেই এবার উঠে এসেছেন বাংলা ধারাবাহিকের নায়িকা সৃজলা গুহ। অভিনেতা শন ও নবাগতা সৃজলার ‘মনফাগুন ধারাবাহিকে কাজ সিরিয়ালপ্রেমীদের মনে ছাপ ফেলে গেছে। জন্মের পর অভিনেত্রী সৃজলাকে (Srijla Guha) নিয়ে তার পরিবার দার্জিলিং এ চলে আসেন। কলকাতায় বড় না হলেও বাড়িতে বাংলা ভাষার চর্চা থাকার কারণে বাংলা বলতে কোন অসুবিধা হয় না শৈল সুন্দরীর।৫ বছর আগে প্রথম পা রাখেন কলকাতায়, প্রথম দেখাতেই ভালোবেসে ফেলেন এই শহরকে। ততদিনে কলকাতা ও মুম্বাইতে বেশ কিছু মডেলিং এর কাজও শুরু করে দিয়েছেন একটি বিজ্ঞাপনেও মুখ দেখানো হয়ে গিয়েছে তার। আর তাই এবার বিজ্ঞাপন ছেড়ে হঠাৎই অভিনয়ে আসার সিদ্ধান্ত।

swkriti majumdarসুকৃতি মজুমদারঃ বাংলা টেলিভিশনের অন্যতম জনপ্রিয় ধারাবাহিক ‘খেলাঘর’। স্টার জলসার এই ধারাবাহিকে লিড রোলে অভিনয় করেছেন অভিজ্ঞ সৈয়দ আরেফিন ও নবাগতা স্বীকৃতি মজুমদার। হ্যাঁ, পূর্ণার আসল নাম স্বীকৃতি। শান্টু আর পূর্ণার প্রেমের কাহিনিতে সাজানো খেলাঘরের গল্প। মাত্র পাঁচ মাস আগে শুরু হওয়া এই ধারাবাহিকর এখন টিআরপি তালিকায় সেরা ১০-এ পাকা জায়গা করে নিয়েছে। বড়লোকের মেয়ে অথচ পূর্ণার মার্জিত এবং নম্র ব্যবহার শুরু থেকেই দাগ কেটেছে দর্শক মনে। স্বীকৃতির দুর্দান্ত অভিনয় থেকে বলা দায়, এটা তাঁর প্রথম সিরিয়াল। তবে হ্যাঁ, খেলাঘর-এর সঙ্গেই প্রথমবার ক্যামেরা ফেস করছেন স্বীকৃতি। এটা তাঁর অভিনয়ের হাতেখড়ি।

google-news-icon

লেটেস্ট খবর