fbpx

Thank God: আইনের দরজায় অজয়-সিদ্ধার্থের সিনেমা! ব্রহ্মাস্ত্রের পর এবার বয়কটের মুখে ‘থ্যাঙ্ক গড’

পরিচালক ইন্দ্র কুমার, অজয় দেবগন এবং সিদ্ধার্থ মালহোত্রর বিরুদ্ধে মামলা দায়ের করা হল আদালতে।

অনীশ দে, কলকাতা: ট্রেলার মুক্তি পাওয়ার এক সপ্তাহের মধ্যেই আইনি ঝঞ্ঝার সম্মুখীন থ্যাঙ্ক গড (Thank God)। অজয় দেবগন (Ajay Devgn) এবং সিদ্ধার্থ মালহোত্র (Siddharth Malhotra) অভিনীত এই কমেডি ছবির মূল প্রেক্ষাপট চুত্রগুপ্ত এবং মানুষের কর্মফল নিয়ে। আর তাতেই বিপত্তি। ছবির পরিচালক ইন্দ্র কুমার (Indra Kumar), অজয় দেবগন (Ajay Devgn) এবং সিদ্ধার্থ মালহোত্রর বিরুদ্ধে মামলা দায়ের করা হলো জৌনপুর আদালতে। আইনজীবি হিমাংশু শ্রীবাস্তব-এর দায়ের করা এই মামলার বয়ান রেকর্ড হবে ১৮ই নভেম্বর। আবেদনকারীর মতে, এই ছবির ট্রেলারে হিন্দু ধর্মকে অপমান করা হয়েছে। শুধু অপমানই নয় রীতিমতো উপহাস করা হয়েছে হিন্দু ধর্মকে।

thank god

তিনি আরও জানান, অজয় দেবগন (Ajay Devgn) এই ছবিতে চিত্রগুপ্তর চরিত্রে অভিনয় করছেন কিন্তু পুরাণ অনুযায়ী যে পোশাক তাঁর পরার কথা তিনি তা পরেননি। তাছাড়াও অজয় দেবগনের মুখে নানা আপত্তিকর ভাষাও শোনা যায়, এমনটাই বলেন আবেদনকারী। উল্লেখ্য, নিজের পিটিশনে আবেদনকারী জানান, “আমাদের জীবনের ভালো ও খারাপের হিসেব রাখে চিত্রগুপ্ত। কর্মের প্রভু তিনি। ছবিতে ঈশ্বরের এই ধরনের চরিত্রায়ন একধরনের অপ্রীতিকর পরিস্থিতি তৈরি করতে পারে। এই ছবিটি সরাসরি ধর্মীয় অনুভূতিকে আঘাত করেছে।”

thank god 2

থ্যাঙ্ক গড ছবির ট্রেলার মুক্তি পেয়েছে ৯ সেপ্টেম্বর। এই ট্রেলারের শুরুতেই দেখা যায় সিদ্ধার্থ মালহোত্রর চরিত্রটি একটি দুর্ঘটনায় মারা যায়। তারপর জমালয়ে পৌঁছান সিদ্ধার্থ (Siddharth Malhotra)। আর সেখানেই হিসেব হবে তাঁর পাপের। এই ছবিতে চিত্রগুপ্তের চরিত্রে অজয় দেবগণের লুক সকলের নজর কেড়েছে। মানুষের জীবনের সমস্ত পাপের ব্যাখ্যা দিতে দেখা যায় তাঁকে এই ট্রেলারে। ছবির পরিচালক ইন্দ্র কুমার এর আগে একাধিক হিট ছবি উপহার দিয়েছেন বক্স অফিসকে। ছবির ভিএফএক্স দর্শকদের মন কাড়তে ব্যর্থ হয়েছে। বাংলা ছবি প্রেমীরা আবার এর সঙ্গে ভানু বন্দোপাধ্যায়ের যমালয়ে জীবন্ত মানুষের সাদৃশ্য খুঁজে পাচ্ছেন।

thank god 4

উল্লেখ্য, থ্যাঙ্ক গড ছবিতে অজয় দেবগণ (Ajay Devgn), সিদ্ধার্থ মালহোত্র ছাড়াও দেখা যাবে রকুল প্রীতকে এবং এক বিশেষ চরিত্রে অভিনয় করতে চলেছেন নোরা ফতেহি। সম্প্রতি সময়ে বয়কটের ট্রেন্ড যেভাবে বলিউডের সমস্ত ছবিকে গ্রাস করেছে তার শিকার হবে না তো থ্যাঙ্ক গড? এখন সেটাই দেখার অপেক্ষা। অবশ্য বয়কটের কোনও গুরুত্ব নেই, ছবির গল্পটাই আসল, এমনটাই বলতে শোনা গিয়েছে একাধিক সুপারস্টারকে।

google-news-icon

লেটেস্ট খবর