fbpx

শীঘ্রই হবে বয়সের সেঞ্চুরি, করোনাকে হার মানালেন ৯৮ বছরের স্বাধীনতা সংগ্রামী

বিশিষ্ট গান্ধীবাদী স্বাধীনতা সংগ্রামী ঈশ্বরলাল দাভে এবার করোনা কে (Covid19) হারিয়ে বাড়ি ফিরলেন। প্রায় ১২ দিন হাসপাতালে কাটানোর পরে করোনাকে পরাজয় করেন ৯৮ বছর বয়সী এই স্বাধীনতা সংগ্রামী। তবে, পরিবারের অন্য এক সদস্য Covid পরবর্তী জটিলতার সঙ্গে লড়াই করছেন এখনও।

নবরংপুরার বাসিন্দা ৯৮ বছর বয়সী এই “তরুণ” এখনো ভোর ৬ টায় ঘুম থেকে উঠে এক ঘন্টা যোগাসন করেন। তারপরে প্রাতঃভ্রমণে যান। করোনা ভাইরাস সংক্রমণকে হারানোর পিছনে একমাত্র কৃতিত্ব তার ২০ বছরের যোগ অনুশীলন, এমনটাই দাবি ঈশ্বরলালের।

98 year old Freedom fighter defeats corona

নিজের দীর্ঘায়ু সম্পর্কে মতামত, “ভালো খাবার এবং ভালো চিন্তা মানসিক ও শারীরিক স্বাস্থ্যের প্রধান চাবিকাঠি। জীবনে প্রত্যেককেই উত্থান-পতনে মুখোমুখি হতে হয়। কিন্তু দৃঢ় মানসিকতা এবং না হেরে যাওয়া মনোভাব আমাদের জয় নিশ্চিত করতে পারে।” সম্প্রতি তিনি চিকুনগুনিয়া তে আক্রান্ত হন। কিন্তু সেখানেও তিনি জয়ী হন। বর্তমানে ৯৪ বছর বয়সী স্ত্রীর সাথে তিনি আমেদাবাদ শহরে থাকেন। চাকরি সূত্রে ছেলে-মেয়েকে থাকতে হয় বিদেশে।

98 year old Freedom fighter defeats corona

স্বাধীনতা আন্দোলনে অবদান সম্পর্কে তিনি বলেন, ” আমি ভারত ছাড়ো আন্দোলনের সময় আমি দরিয়াপুরের এক সক্রিয় কংগ্রেস সদস্য ছিলাম। আমরা বিভিন্ন সমাবেশে লিফলেট বিতরণ করতাম। চমণপুরায় এরকমই এক সমাবেশে লিফলেট বিলি করার সময় ইংরেজ পুলিশ দ্বারা আক্রান্ত হই আমরা। শেষ পর্যন্ত আমরা পুলিশের হাতে ধরা পড়ে যাই এবং আমাদের আদালতে নিয়ে যাওয়া হয়।”

কিছুটা ভেবে আবার তিনি বলেন, ” আমাদের প্রায় ছয় মাস কারাদণ্ড এবং ২০০ টাকা জরিমানা করা হয়েছিল। কিন্তু আমি তা মানতে অস্বীকার করায় আমার সঙ্গে আরও দুমাস বাড়িয়ে দেওয়া হয়েছিল। সেই সময় আরো অনেক স্বাধীনতা সংগ্রামীর সাথে সবরমতী কারাগারে সময় কাটিয়েছি।” বর্তমানে এই স্বাধীনতা সংগ্রামী একটি সংগঠনের (NGO) সাথে যুক্ত আছেন যারা সামাজিক উন্নয়নের কাজ করেন।

google-news-icon

লেটেস্ট খবর