fbpx

Sridevi Kapoor’s Death: বাথটবের জলে ডুবে মৃত্যু? শ্রীদেবীর প্রয়াণ যেন আজও রেখে গিয়েছে হাজারটা প্রশ্ন

তাঁর মৃত্যু কি নিছক দূর্ঘটনা নাকি নেপথ্যে রয়েছে কোনও অজানা সত্য?

জয়ীতা সাহা, কলকাতা: চার বছর হল ‘চাঁদনি’ আর আমাদের মধ্যে নেই। কিংবদন্তি অভিনেত্রী তথা নব্বইয়ের দশকের অভিনেত্রী হিসেবে তিনিই শ্রেষ্ঠ। কন্নড়, মালায়ালম, তেলেগু, হিন্দি সহ বিভিন্ন ভাষায় ৩০০-রও বেশি ছবিতে অভিনয় করেছেন বলিউডের প্রথম সুপারস্টার অভিনেত্রী শ্রীদেবী কাপুর( Sridevi Kapoor )। হ্যাঁ ‘চাঁদনি’ নামে সিনেমাতে অভিনয় করার পর শ্রীদেবী চাঁদনি নামে পরিচিত হন। তাঁর অসাধারণ অভিনয়ে আজও মুগ্ধ দর্শকমহল। তিনি নৃত্যশিল্পী না হলেও তাঁর অসাধারণ নৃত্য প্রতিভা স্পর্শ করেছিল তাঁর অনুরাগীদের হৃদয়।

প্রিয় অভিনেত্রী তথা নব্বইয়ের দশকের এই সুপারস্টারের অকাল প্রয়াণ ঘটে। তাঁর মৃত্যু( Death ) নিয়ে সেই সময় কার্যত হইচই পড়ে গিয়েছিল বিভিন্ন মহলে। বিভিন্ন সংবাদমাধ্যমে প্রকাশিত হয়েছিল একের পর এক চাঞ্চল্যকর তথ্য। বিভিন্ন তদন্ত হলেও সময়ের ঘোরপ্যাঁচে চাপা পড়ে গিয়েছে সব। বন্ধ হয়ে গিয়েছে তদন্ত। প্রিয় অভিনেত্রীর( sridevi Kapoor )অকাল প্রয়াণে শোকাহত গোটা বলিউড থেকে অনুরাগী সকলেই এই মৃত্যু রহস্যের উন্মোচন প্রত্যাশা করেন আজও। কেন অকালেই প্রান হারাতে হল অভিনেত্রীকে? তাঁর মৃত্যু কী নিছকই শারীরিক অসুস্থতার জন্য নাকি এর পেছনে রয়েছে এক চরম সত্য?

img 20220813 122716প্রসঙ্গত, শ্রীদেবী কাপুর প্রযোজক বনি কাপুরের সঙ্গে বিবাহ বন্ধনে আবদ্ধ ছিলেন। তাঁদের দুটি কন্যা সন্তানও রয়েছে। সূত্রের খবর, শ্রীদেবী কাপুর তাঁর মৃত্যুর আগে তাঁর ছোট মেয়ে খুশিকে নিয়ে দুবাইয়ে একটি বিয়ের অনুষ্ঠানে গিয়েছিলেন। অভিনেত্রী( Sridevi Kapoor ) ঠিক করেছিলেন সেখানে আরও কয়েকটা দিন কাটাবেন এবং সামনেই বড় মেয়ে জাহ্নবীর জন্মদিন, তাঁর জন্য কেনাকাটাও করবেন। যদিও বিশেষ কাজের জন্য বিয়ের অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন না বনি কাপুর। তিনি একটি বৈঠকের জন্য লখনউ গিয়েছিলেন। কিন্তু স্ত্রীকে চমকে দিতে ২৪ তারিখ ফিরে আসেন বনি( যেদিন শ্রীদেবীর মৃত্যু হয় )।

বনি কাপুর এ প্রসঙ্গে জানিয়েছিলেন ওই দিন তাঁর সঙ্গে শ্রীদেবীর হোটেলের বাইরে ঘুরতে যাওয়ার কথা ছিল। স্নানে যান শ্রীদেবী( Sridevi Kapoor ) দেরি হতেই ডাক দেন। কোনও উত্তর না পাওয়ায় তিনি বাথরুমে ঢুকতেই বাথটাবে শ্রীদেবীকে কার্যত অচৈতন্য অবস্থায় দেখতে পান। অভিনেতা সঞ্জয় কাপুর বক্তব্য অনুযায়ী “হৃদরোগে আক্রান্ত হয়ে মৃত্যু হয়েছে অভিনেত্রীর।” তদন্তে দুবাই পুলিশের পক্ষ থেকে জানানো হয় যে, “দুর্ঘটনাবশত জলে ডুবে যাওয়ার কারণে মৃত্যু হয়েছে শ্রীদেবীর।”

img 20220813 122928

এ প্রসঙ্গে, তাঁর মৃত্যুর একবছর পর কেরালার ডিরেক্টর জেনারেল অফ পুলিশ ঋষিরাজ সিংয়ের একটি নতুন দাবি প্রকাশিত হয়েছিল যে, “অভিনেত্রীকে খুন করা হয়েছিল”। কেরালা কৌমুদি নামে সংবাদপত্রের একটি কলামে, ঋষিরাজ সিং লিখেছিলেন যে, শ্রীদেবীর মৃত্যু ‘ডুবে নাও হতে পারে’। তিনি লিখেছিলেন, “আমার বন্ধু এবং প্রয়াত ফরেন্সিক বিশেষজ্ঞ ডাক্তার উমাদাথান আমাকে অনেক আগেই বলেছিলেন যে শ্রীদেবীর( Sridevi Kapoor ) মৃত্যু একটি হত্যাকাণ্ড হতে পারে, দুর্ঘটনাজনিত মৃত্যু নয়। আমি কৌতূহলবশত শ্রীদেবীর মৃত্যু সম্পর্কে তাকে জিজ্ঞাসা করলে তিনি আমাকে এটি বলেছিলেন।”তিনি আরও জানিয়েছিলেন “ডাক্তার উমাদাথান তাঁর দাবির সমর্থনে কিছু তথ্যও তুলে ধরেছেন।

তাঁর মতে, একজন ব্যক্তি যতই নেশা দ্রব্য পান করুক না কেন, এক ফুট গভীর জলে কখনই ডুবে যাবে না। কেউ তার দুই পা ধরে রাখলেই সে ডুবে যাবে। এবং যদি তার মাথা জলে ডুবিয়ে দেয়।” সুপারস্টার অভিনেত্রী শ্রীদেবীর( Sridevi Kapoor ) অকাল প্রয়াণ ঘটলেও আজও তিনি তাঁর কাজের মাধ্যমে বেঁচে রয়েছেন অনুরাগীদের মনের মণিকোঠায়। তাঁর বড় মেয়ে জাহ্নবী কাপুর কর্মজীবন হিসেবে তাঁর মা’কেই অনুসরণ করেছেন। মায়ের সঙ্গে মুখের আদলে অনেক মিল থাকায় প্রতিপদে তিনিই যেন মনে করিয়ে দেন তাঁর মা শ্রীদেবী কাপুরকে।

google-news-icon

লেটেস্ট খবর