fbpx

Bollywood Stars: বিখ্যাত অভিনেতা তাতে কি? কাজে ভুল করে এই পরিচালকের হাতে মার খেয়েছেন সইফ থেকে কপিল

শ্যুটিং চলাকালীন সেটের অন্দরে মার খেয়েছেন সইফ, বাদ যাননি এই শিল্পীও! দেখে নিন সেই পরিচালকের আসল পরিচয়

মন্টি শীল, কলকাতা: সালটা ছিল ২০০০, বক্স অফিস কাঁপিয়ে মুক্তি পেয়েছিল জনপ্রিয় বলিউড সিনেমা ‘মেলা’। পরিচালক ধর্মেশ দর্শন পরিচালিত এই ব্লকবাস্টার সিনেমাতে মুখ্য চরিত্রে অভিনয় করতে দেখা গিয়েছে বলিউড অভিনেতা আমির খান, টুইঙ্কেল খান্না এবং অভিনেতা আমির খানের ভাই ফয়জল খান। তবে এই তিন মুখ্য চরিত্রের সঙ্গে সঙ্গে দর্শকদের বিশেষ নজর কেঁড়েছিল সিনেমার খলনায়ক গুজ্জার সিং ওরফে বলিউড অভিনেতা তিনু বর্মা ( Teenu Verma )। অভিনেতা তাঁর অসাধারণ অভিনয়ের দরুন দর্শকদের কাছে ভীষণ ভাবে প্রসংশিত হয়েছিলেন।

যদিও এই সিনেমার পর অভিনেতা তিনু বর্মা’কে একাধিক বলিউড সিনেমাতে খলনায়কের ভুমিকায় অভিনয় করতে দেখা গিয়েছে। যার মধ্যে অন্যতম হল, ‘আঁখে’, ‘হিম্মত’, ‘মা তুঝে সলম’ সহ একাধিক। তবে এত গেল বলিউড সিনেমার প্রসঙ্গ। সূত্র অনুযায়ী, বিনোদন জগতের এই বিশিষ্ট অভিনেতা বলিউডের সঙ্গে সঙ্গে ভোজপুরি সিনেমাতেও বিশেষ ছাপ ফেলতে সক্ষম হয়েছেন। কিন্তু বিনোদন জগতের একজন সফলতম অভিনেতা হওয়ার সঙ্গে সঙ্গে তিনু বর্মা ( Teenu Verma ) একজন স্টান্ট ডিরেক্টর হিসেবেও পরিচিত। শোনা যায়, তাঁর পরিচালনায় বলিউডের একাধিক সিনেমাতে অ্যাকশন সিন সম্পূর্ণ করা হয়েছে।

30c22

কিন্তু এই বিপুল জনপ্রিয়তা থাকা সত্তেও তিনু বর্মা একদা এক বিতর্কের সম্মুখীন হন। সূত্র অনুযায়ী, বলিউডের এই অভিনেতা সিনেমা পরিচালনার দায়িত্বে থাকাকালীন বলিউডের নবাব পুত্র সইফ আলি খান’এর ( Saif Ali Khan ) এর সঙ্গে বচসায় জড়িয়ে পড়েন। এক সাক্ষাৎকারে অভিনেতা সইফ আলি খান বলেন, ‘বলিউড সিনেমা ‘কাচ্চে ধাগে’র একটি ট্রেনের দৃশ্য শ্যুট করা হচ্ছিল। যার পরিচালনার দায়িত্বে ছিলেন স্বয়ং টিনু বর্মা। এমন থাকতে পরিচালকের অ্যাকশন বলার পরেও তিনি কিছুতেই তাঁর সংলাপ বলছিলেন না। উপরন্তু সে ট্রেনের যাত্রাকে উপভোগ করছিলেন।’

30c23

যদিও একবার নয়, অভিনেতার মন্তব্য অনুযায়ী তিনি বারংবার এই ঘটনার পুনঃরাবৃত্তি করছিলেন। যার পর শেষে বিরক্ত হয়ে রাগের বশে তিনু অভিনেতাকে সেটে সকলের সামনে গালে চড় মারেন। তবে শুধুমাত্র সইফ আলি খান নয়, বলিউডের জনপ্রিয় কৌতুক শিল্পী কপিল শর্মা’ও তিনু বর্মার হাতে মার খেয়েছিলেন। একদা তাঁর শো’এর একটি পর্বে শিল্পী বলেন, ‘গদর:এক প্রেম কথা ছবিতে তিনি একজন জুনিয়র আর্টিস্ট হিসেবে অংশগ্রহণ করতে গিয়েছিলেন। সেই সময় পরিচালক টিনূ বর্মা তাঁকে মেরে সেট থেকে বের করে দেন।’ যদিও এর কারণ হিসেবে শিল্পী বলেন, ‘সে সময় পরিচালকের কথা অমান্য করার জন্যই এমন পরিস্থিতির সম্মুখীন হতে হয়েছিল।’ সচরাচর বলি তারকাদের নিয়ে বিভিন্ন সময়ে একাধিক বিতর্কের সূত্রপাত ঘটে। এই তথ্য সামনে আসার পর যে ফের এক নতুন বিতর্কের সূত্রপাত ঘটতে চলেছে তা বলাই যায়।

google-news-icon

লেটেস্ট খবর