fbpx

Trina Saha: বাড়িতে ঝগড়া করে এসেছিলেন অভিনয় জগতে, নিজের দক্ষতায় আজ টেলিপাড়া কাঁপাচ্ছেন তৃণা সাহা

নেহা চক্রবর্ত্তী, কলকাতা: এই মুহূর্তে বাংলা টেলিভিশনের দুনিয়ায় অন্যতম সফল অভিনেত্রী হিসেবে পরিচিত তৃণা সাহা( Trina Saha )। এখন টেলিভিশনের পর্দায় পর পর নতুন ধারাবাহিক আসছে। সেই ধারাবাহিকের মাধ্যমে উঠে আসছে অনেক নতুন অভিনেতা অভিনেত্রী। ঠিক সেভাবেই পা রেখেছিলেন তৃণা এই ইন্ডাস্ট্রিতে( Tollywood industry )। নিজের অভিনয়ের মাধ্যমে দর্শকদের মন জয় করেছিলেন। যদিও তাঁর অভিনয়ের এই পথ ছিলনা সুগম। অভিনেত্রীর ইন্ডাস্ট্রিতে আসার ও সাফল্য অর্জনের অভিজ্ঞতা তিনি শেয়ার করলেন নিজেই দিদি নাম্বার ওয়ানের ( didi no 1 ) মঞ্চে রচনা ব্যানার্জির ( Rachana Banerjee ) সঙ্গে।

img 20220726 124540

খড়কুটো ধারাবাহিকের মাধ্যমে অত্যাধিক জনপ্রিয়তা পেয়েছেন বাঙালি অভিনেত্রী তৃণা সাহা। বর্তমানে নায়িকা গুনগুন( khorkuto ) হিসেবে পরিচিত বাঙালি দর্শক তথা টলিউডে।এছাড়াও তিনি সোশ্যাল মিডিয়ায় সবসময়ই অ্যাকটিভ থাকেন তাই অভিনেত্রীর এখন অত্যধিক ফ্যান ফলোয়িং বলা চলে ।

উল্লেখ্য দিদি নাম্বার ওয়ানে এসে এই অভিনেত্রী নিজের জীবনের গল্প শেয়ার করেছিলেন রচনা ব্যানার্জীর সঙ্গে। তার সঙ্গে ছিলেন তাঁর মা ও। অভিনেত্রী জানান তিনি প্রথমদিকে অভিনয় জগতে আসতে চাননি। তিনি হতে চেয়েছিলেন শিক্ষিকা। অভিনয় জগতে আসার জন্য অনেক কষ্ট করতে হয়েছে তাঁকে। কারণ ভয়ে বাড়িতে জানাতেই পারেননি যে অভিনয় করতে চান তিনি। তাঁর বরাবরই ইচ্ছে ছিল সিনেমা অথবা কোরিওগ্রাফি কিছু একটা করবেন তিনি। তাই নায়িকা ঠিক করেন এমবিএ, সিএস নিয়ে পড়াশোনা করে অভিনয় জগতে প্রবেশ করবেন। যদিও এই সিদ্ধান্ত শুনে নায়িকার মা-বাবা বিশ্বাস করতে চাননি। এর জন্য নায়িকার সঙ্গে মা-বাবার সঙ্গে ঝগড়া হয়েছিল এবং মা-বাবা রীতিমত কথা বলা বন্ধ করে দিয়েছিলেন তাঁর সাথে।

বিশেষ ভাবে উল্লেখ্য, অভিনয় জগতে প্রবেশের আগে বড় কোম্পানিতে চাকরি করেছেন তৃণা সাহা। কিন্তু চাকরি ছেড়ে দিয়ে নায়িকা হওয়ার জন্য প্রস্তুত হচ্ছিলেন তিনি। তার ছয় মাস পর প্রথম কাজ পেলেন অভিনয় জগতে তৃণা। তারপর থেকেই সাফল্য আসতে থাকে তাঁর জীবনে। এরপর বাবা-মা বিষয়টি মেনে নিলেন মেয়ের সাফল্য দেখে।

 

google-news-icon

লেটেস্ট খবর