fbpx

বালিগঞ্জ ও আসানসোলে সবুজ ঝড় ! জয়ের পর প্রতিক্রিয়া দিলেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়

অনীশ দে, কলকাতা: আসানসোলে কি আবার ক্ষমতা দখল করবে ভাজপা নাকি এবার সংখ্যাগরিষ্ঠতার সমর্থন থাকবে তৃণমূল কংগ্রেসের দিকে? (Asansol Ballygunge bypoll results 2022) তার উত্তর মিলল আজকে। আসানসোলে পূর্ণ সংখ্যাগিষ্ঠতা নিয়ে ক্ষমতার স্বাদ চাখলো তৃণমূল কংগ্রেস। আসানসোলের তৃণমূল প্রার্থী শত্রুঘ্ন সিনহা প্রায় ২ লক্ষ ভোটে হারিয়েছেন বিজেপি প্রার্থী অগ্নিমিত্রা পালকে(Agnimitra Paul)। অন্যদিকে বালিগঞ্জ কেন্দ্রে বাবুল সুপ্রিয়র(Babul Supriyo) জয় তাক লাগিয়ে দিয়েছে সবাইকে (Asansol Ballygunge bypoll results 2022)। সদ্য বিজেপি ছেড়ে তৃণমূলে আসা বাবুলের এই জয় ঘিরে উচ্ছসিত সমর্থকেরা।

বালিগঞ্জ কেন্দ্রে বিজেপি মনোনীত প্রার্থী ছিলেন কেয়া ঘোষ এবং সিপিআইএম- এর হয়ে দাড়ান সায়রা শাহ হালিম। সুব্রত মুখ্যপাধ্যায়- এর প্রয়াণের পর বালিগঞ্জ কেন্দ্রে আবার উপ নির্বাচন অনুষ্ঠিত হয়। তৃণমূল সুপ্রিমো ও রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় (Mamata Banerjee) টুইট করে আসানসোল ও বালিগঞ্জের ভোটারদের ধন্যবাদ জানিয়েছেন (Asansol Ballygunge bypoll results 2022)।

বালিগঞ্জের জয়ী প্রার্থী (Babul Supriyo) সংবাদসংস্থাকে জানিয়েছেন, “আমি যথেষ্ট আত্মবিশ্বাসী। 41 শতাংশ ভোটারের ভোট পড়ার পর এটা বোঝা যাচ্ছে বিরোধীদের ভুয়ো ভোটারের তত্ত্ব একেবারেই মিথ্যা। যদি এমন হতো, তাহলে ভোটার উপস্থিতি কি এত বেশি হতো? পশ্চিমবঙ্গ মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের এবং তৃণমূলের সঙ্গে আছে।”

asansol voting

আসানসোলে ভোটের দিন অর্থাৎ ১২ই এপ্রিল বিজেপির প্রার্থী ফ্যাশন ডিজাইনার অগ্নিমিত্র পাল(Agnimitra Paul) দাবি করেন তাকে এবং তার সিকিউরিটির লোকদের বাজেভাবে হেনস্থা ও আক্রমন করে তৃণমূলের গুণ্ডা বাহিনী। এই তত্ত্বে অবশ্য কর্ণপাত করতে নারাজ তৃণমূল। এই দুই কেন্দ্রে বিপুল ভোট জয়ের পরে তৃণমূলের অন্যতম উত্তরসূরি অভিষেক বন্দোপাধ্যায় (Abhishek Banerjee) টুইট করেন।

আরও পড়ুন: মিনিটেই খেয়ে ফেললেন ৩ কেজির সিঙ্গাড়া, ভিডিও দেখলে অবাক হবেন আপনিও
বিজেপি নেতা অমিত মালব্য টুইটারে লেখেন, ” বাংলায় প্রতিকূল রাজনৈতিক পরিস্থিতি থাকা সত্ত্বেও, আসানসোল এবং বালিগঞ্জের উপ-নির্বাচনে বিপুল সংখ্যক মানুষ বিজেপিকে ভোট দিয়েছেন। তাদের প্রত্যেকের প্রতি আমরা কৃতজ্ঞ। পুলিশের নির্লজ্জ অপব্যবহারের সাথে অবাধ ও সুষ্ঠু ভোট একটি দুঃস্বপ্নে পরিণত হয়েছে। কিন্তু টিএমসির সন্ত্রাসের রাজত্ব বেশিদিন থাকবে না।”

google-news-icon

লেটেস্ট খবর