fbpx

Uron Tubri: যেন কল্পনার দুুনিয়া! চপের দোকানদার থেকে তুবড়ির পুলিশ হয়ে ওঠার কাহিনীতে হাসির রোল নেটপাড়ায়

অহেলিকা দও, কলকাতা : চলতি বছরের ২৮ মার্চ থেকে টেলিভিশনের পর্দায় শুরু হয়েছিল নতুন ধারাবাহিক ‘উড়ন তুবড়ি’ ( Uron Tubri )। তবে কপালটা বড্ড খারাপ তুবড়ির। জ্বলার আগেই নিভে যায় এই তুবড়ি। তিন মাসের মধ্যে তিনবার স্লট পরিবর্তন হয় এই ধারাবাহিকের। তিন বোন আর তাদের দুঃখী মায়ের গল্পই প্রধান উপজীব্য এই ধারাবাহিকের। তবে ধারাবাহিকে ( Zee Bangla ) তুবড়ির নতুন চমক দেখে অবাক দর্শকগণ।

জি বাংলায় শুরু হয়েছে নতুন ধারাবাহিক ‘বোধিসত্ত্বর বোধবুদ্ধি’। ‘যমুনা ঢাকি’ শেষ হলেই এই সিরিয়ালের আগমন ঘটবে তাও নিশ্চিত ছিল সকলে। তাই এখন তুবড়ির তুবড়ি ফাটানোর সময় রাত সাড়ে ১০টায়। সিরিয়ালকে সন্ধ্যা ৬টার স্লট থেকে সরিয়ে দেওয়া হয়েছিল মাত্র এক মাস এক সপ্তাহের মধ্যেই। ‘খেলনা বাড়ি’র আগমনে বড়সড় রদবদল হয়েছিল চ্যানেলের সিরিয়ালগুলির সম্প্রচার সময়ে।

uron tubri

উড়ন তুবড়ি  নতুন চমক দর্শকদের তাক লাগিয়ে দিয়েছে। দেখা যাচ্ছে, পুলিশ কনস্টেবলের চাকরি পেয়েছে তুবড়ি। সে তার শাশুড়ি মায়ের কাছে আশির্বাদ নেওয়ার সময়, শাশুড়ি মা তাকে বলেন, কনন্টিবেলের চাকরি করে বংশের মুখ ডুবিয়ে আশির্বাদ চাইতে এসেছো। অপর দিকে তার স্বামী এতে খুব খুশি।

সাম্প্রতি, ধারাবাহিককের  মোড় ঘোরানোর জন্য তুবড়ির এই নতুন চমক দেখে হাসির ফোয়ারা নেটপাড়ায়। দর্শকদের বক্তব্য, “চপ ভেজেই যদি কনস্টেবল হওয়া যায়, তাহলে জীবনে পড়াশোনা করে আর কি লাভ”। কেউ কেউ আবার লিখেছেন, “কি করে পেলো চাকরি??” তবে আরও কি নতুন চমক আসতে চলেছে এই ধারাবাহিকে?

google-news-icon

লেটেস্ট খবর