fbpx

বর নিয়ে টানাটানি! এক যুবকে বিয়ে করতে নাছোড়বান্দা দুই যুবতি, বউ বাছতে হল ‘টস’

‘ এক ফুল দো মালি ‘ এতো প্রচলিত প্রবাদ। কিন্তু এবার কর্ণাটকে (Karnataka) ঘটল ঠিক উল্টোটা অর্থাৎ এক যুবক নিয়ে টানাটানি চলল দুই যুবতীর মধ্যে৷ কর্ণাটকের সকলেশপুর গ্রামে এক ত্রিকোণ প্রেমকে কেন্দ্র করেই ঘটে গিয়েছে ধুন্ধুমার কান্ড। সূত্রের খবর, ওই গ্রামের ২৭ বছর বয়সী এক যবুক একই সঙ্গে দুই যুবতীর সঙ্গে প্রেম চালিয়ে যাচ্ছিলন। কিন্তু দুই প্রেমিকার মধ্যে বউ হবে কে এই নিয়েই সূত্রপাত হয় অশান্তির।

দুই প্রেমিকার কেউই নিজের জায়গা ছাড়তে রাজী নন। জানা যাচ্ছে, ওই যুবকের গত এক বছর ধরে পাশের গ্রামের একটি মেয়ের সঙ্গেই প্রেমের সম্পর্ক ছিল ওই যুবকের কিন্তু গত ৬ মাস আগে অন্য আরেকটি মেয়েও ধরা পড়ে যুবকের প্রেমের জালে। এরপর গোপনে দুজনের সঙ্গেই প্রেম চালাতে থাকে প্রেমিক।

marriage,karnataka,toss,two bride one groom,কর্ণাটক,বিয়ে,টস,এক যুবকে বিয়ে

কিন্তু বিয়ের কথা উঠতেই বেজায় বিপাকে পড়ল যুবক। শেষপর্যন্ত সেই ত্রিকোণ প্রেমের সুরাহা করতে এগিয়ে এল গ্রাম পঞ্চায়েত। টসের মাধ্যমেই ঠিক হল, কে ওই যুবককে স্ত্রী। আসলে দুই প্রেমিকার সঙ্গে গোপন অভিসার ভালোই চলছিল যুবকের। কিন্তু হঠাৎই এক আত্মীয় কলকাঠি নাড়াতেই হাটে হাঁড়ি ভেঙে যায়। এক আত্মীয় ওই যুবককে অন্য এক প্রেমিকার সঙ্গে ঘুরতে দেখে যুবকের বাড়িতে জানায়। কিন্তু যুবকের বাড়ির লোক সেই সম্পর্ক মেনে নিতে চায়নি।

অন্যত্র যুবকের বিয়ের তোরজোর শুরু করতেই দুই প্রেমিকা হাজির হন যুবকের বাড়ি, এবং দুজনেই তাদের সিদ্ধান্তে অটল বিয়ে করলে ওই প্রেমিককেই করবেন। তখনই বিষয়টি সবার সামনে আসে। এরপর গোটা গ্রামে বিষয়টি জানাজানিও হয়ে যায়। শেষপর্যন্ত বিবাদ মেটাতে আসরে নামে গ্রামের পঞ্চায়েত।

পঞ্চায়েতের সালিশি সভা থেকে ওই যুবককে এই বিষয়ে প্রশ্ন করা হয়। সেখানেই পঞ্চায়েতের সদস্যরা জানান, টসের মাধ্যমে ওই যুবকের কনে ঠিক করা হবে। আর তিন পরিবারই রাজি হয়, সে ব্যাপারে তাদের সম্মতিও নেওয়া হয়। জানা গিয়েছে, এরপরই নাকি টসের মাধ্যমে ঠিক হয়, প্রথম প্রেমিকাকেই বিয়ে করবে ওই যুবক। জানা গিয়েছে, এরপরই নাকি টসের মাধ্যমে ঠিক হয়, প্রথম প্রেমিকাকেই বিয়ে করবে ওই যুবক।

google-news-icon

লেটেস্ট খবর