fbpx

Kishore Kumar: মধুবালার ভালোবাসা পেতে কি কিশোর কুমারকে বদলাতে হয়েছিল ধর্ম? কী বলছেন অভিনেত্রীর বোন

মন্টি শীল, কলকাতা : সাধারণত লক্ষ্য করা যায়, সঙ্গীত প্রেমীদের মাঝে যতবার বিখ্যাত সঙ্গীত শিল্পীদের নিয়ে চর্চা শুরু হয়েছে। ঠিক ততবার উঠে এসেছে জনপ্রিয় সঙ্গীত শিল্পী কিশোর কুমার ( Kishor Kumar )-এর নাম। তাঁর গানের মাধুর্যে আজ মুগ্ধ সঙ্গীত প্রেমীরা। তবে জনপ্রিয় এই শিল্পী একজন বিখ্যাত গায়ক হওয়ার সঙ্গে সঙ্গে একজন বিশিষ্ট অভিনেতা, এবং গীতিকার ছিলেন। তাঁর অসামান্য প্রতিভা আজও সঙ্গীত প্রেমীদের ছুঁয়ে যায়। কিন্তু তৎকালীন বলিউড এবং টলিউড দাপিয়ে বেড়ানো প্রবীণ অভিনেতা, তথা গায়ক কিশোর কুমার ( Kishore Kumar ) এর সম্পর্কে এক গুঞ্জন শোনা গিয়েছিল। আর সেটি হল, এই বিশিষ্ট তাঁর জীবনে চার বার বিয়ের পিড়িতে বসেছেন।

যদিও মুল বিতর্কের জায়গা ছিল, কিশোর কুমার ( Kishore Kumar ) এর দ্বিতীয় স্ত্রী অভিনেত্রী মধুবালা ওরফে মমতাজ জাহান বেগম দেহলভির সঙ্গে বিবাহের পর থেকে। জানা গিয়েছিল, কিশোর কুমার ( Kishore Kumar ) অভিনেত্রী মধুবালা ( Madhubala )-র সঙ্গে বিবাহ করার জন্য নিজের হিন্দু ধর্ম ত্যাগ করে ইসলাম ধর্ম গ্রহণ করেছিলেন। যার পর বিভিন্ন সময়ে বিভিন্ন ভাবে এই বিষয় নিয়ে গুঞ্জন শোনা গিয়েছিল। কিন্তু এই ঘটনার আসল সত্যটা সকলের সামনে তুলে ধরেছিলেন অভিনেত্রী মধুবালা ( Madhubala )-র বোন মধুর ভূষণ।

4c52

এক বিশেষ সাক্ষাৎকারে মধুর ভূষণ বলেছিলেন, ‘বিভিন্ন সময়ে বিভিন্ন ক্ষেত্রে তিনি শুনতে পেয়েছেন যে অভিনেত্রী মধুবালা ( Madhubala ) কে বিবাহ করার জন্য কিশোর কুমার ( Kishore Kumar ) ইসলাম ধর্ম গ্রহণ করেছিলেন। কিন্তু আদতে এই ঘটনা সত্য নয়।’ মধু ভূষণের মতে, ‘তাদের পরিবারের কোনও সদস্যরাই ভিন ধর্মের পাত্রকে বিয়ে করার পর কখনওই তাদের ধর্ম পরিবর্তন করেননি।’ শুধু তাই নয়, ‘অভিনেত্রীর বোন ওই সাক্ষাৎকারে বলেছিলেন, তাঁর বিবাহ একজন হিন্দু পাঞ্জাবী পরিবারে হয়েছে। কিন্তু তিনি বা তাঁর স্বামী কেউই ধর্ম পরিবর্তনের কথা ভাবেননি।’
সূত্র অনুসারে, কিশোর কুমারের ( Kishore Kumar ) প্রথম বিবাহ হয়েছিল ১৯৫০ সালে কিংবদন্তি পরিচালক সত্যজিৎ রায়ের ভাইঝি ‘রুমা গুহ ঠাকুরতা’-র সঙ্গে। তাদের প্রথম সন্তানের নাম ‘অমিত কুমার’। এরপর রুমা গুহ ঠাকুরতার সঙ্গে বিবাহ বিচ্ছেদের পর ১৯৫৮ অভিনেত্রী মধুবালার ( Madhubala ) সঙ্গে ফের দ্বিতীয়বারের জন্য বিয়ের পিড়িতে বসেছিলেন কিশোর কুমার ( Kishore Kumar )। কিন্তু সেই সম্পর্কও বেশি দিন স্থায়ী করেনি। কারণ বিয়ের সাত বছর পর অভিনেত্রী মধুবালার মৃত্যু হয়। এরপর ১৯৭৬ সালে কিশোর কুমার ( Kishore Kumar ) অভিনেত্রী যোগিতা বালি এবং ১৯৭৮ সালে ম অভিনেত্রী লীনা চাঁদওয়াদকরকে বিয়ে করেন। কিন্তু চতুর্থ বিয়ের দু’বছর কাটতে না কাটতেই ১৯৮০ সালে প্রয়াত হন বিনোদন জগতের এই বিশিষ্ট শিল্পী। তবে এইটুকু বলা যায়, বর্তমানে শিল্পী আর নেই কিন্তু তাঁর সুর, সৃষ্টি এবং কার্যকলাপ আজও জীবিত রয়েছে আপামোর ভারতবাসীর হৃদয়ে।

google-news-icon

লেটেস্ট খবর