fbpx

Nayak: চেনা চিত্র! ‘নায়ক’ ছবিতে টাকার পাহাড়ে তলিয়ে গিয়েছিলেন উত্তম, অর্পিতা-পার্থর ভবিষ্যৎও কি তাই?

আজ নায়কের প্রয়াণ দিবস। সিনে-প্রেমী মানুষের কাছে আজও মহানায়ক একজনই, উত্তম কুমার।২৪ শে জুলাই,এদিন মহানায়কের মৃত্যুতে পরিবার বিয়োগের যন্ত্রণা পেয়েছিল আপামর বাঙালি।এইদিনে একদিকে এত জনপ্রিয়তা, আবেগ, উচ্ছ্বাস, আর অন্যদিকে ব্যক্তিগত জীবনে না পাওয়ার বোঝা, আশা আকাঙ্ক্ষা, হতাশা, আর অব্যক্ত যন্ত্রণা নিয়ে চলে গিয়েছিলেন সর্বকালের সেরা নায়ক। উত্তম কুমার ‘নায়ক’ সিনেমায় যেন নিজের জীবনেরই এপিটাফ লিখেছিলেন। আজ বড়ো বেশি করে মনে পড়ছে, ‘নায়ক’ সিনেমার একটা দৃশ্য। কোন দৃশ্য? সেই টাকার পাহাড়, স্তূপ স্তূপ টাকা, যেন টাকার বৃষ্টি। মনে পড়ে? যেখানে নায়ক নিজেই ডুবে যাচ্ছেন টাকার স্তূপের গভীরে? ঠিক এমনই এক টাকার স্তূপ দেখেছি আমরা গতকাল। প্রায় বাইশ লক্ষ টাকার স্তূপ। আলমারি নাড়ালেই ঝরে ঝরে পড়ছে টাকার বৃষ্টি।

না, এই মনে হওয়া আমার বা আপনার একার নয়। এইকথা মনে হয়েছে, বিখ্যাত পরিচালক কমলেশ্বর মুখোপাধ্যায়েরও। তিনি লিখেছেন, যদি ‘নায়ক’ ছবির রিমেক হয় তবে বাংলায় ঐ দৃশ্য তৈরির জন্য টাকার অভাব হবে না। বিষয়টি শুনতে যতটা মজার, ভাবনাতে ততটাই বেদনাদায়ক। নায়ক ছবিটি সর্বকালের সেরা। স্বয়ং সত্যজিৎ রায় নায়ক ছবির জন্য ডেকেছিলেন উত্তম কুমারকে। কমেডি, আর রোম্যান্টিক ছবির বাইরে গিয়ে উত্তম যেন পেলেন নিজেকে প্রমাণ করার আরও একটি সুযোগ। নায়ক চরিত্রে যেন আয়নার সামনে দাঁড় করালেন নিজেকে। তারপর যেন নায়কের চরিত্রে অবিকল নিজের কথা বলে চললেন তিনি।ট্রেনে আলাপ হয় সাংবাদিকের সঙ্গে। সাংবাদিকের সামনে যেন খোলা পাতার মতো তুলে ধরলেন নিজেকে। বলে চললেন জীবনের গল্প।


‘আই উইল গো টু দ্য টপ’- টপে পৌঁছতে কে না চায়! জীবনের দুটো সিঁড়ি দিয়েই টপে পৌঁছান যায়। একটা ওপরে ওঠার অন্যটি নীচে নামার । নায়কদের জীবনে ‘টপ’ করার তাড়া বড়ো বেশি। প্রশংসা, খ্যাতি, যশ, আর রাশি রাশি টাকার ভিড়ে হারিয়ে যায় ব্যক্তিগত জীবন। ছোট সুখকোন। বন্ধুত্ব, আবেগ, নিজের পরিবার সবকিছুই বলি হয় অর্থের কাছে। নৈতিক- অনৈতিকতা কেবল বইয়ের পাতায় লেখা অনর্থক শব্দ হয়ে থেকে যায়। বোধ-বুদ্ধির উপরে শুধু একটাই সত্য কাজ করে ‘টাকা আর টাকা’।

নায়ক সিনেমার ৫৬ বছর পরেও, নায়ক-নায়িকাদের জীবনচিত্র একই ছকে বাঁধা। অন্তত কাল যিনি নিজেকে নায়িকা বলে দাবি করেছেন সেই অর্পিতা মুখোপাধ্যায়ের জীবন যাপন বিলাসিতার চিত্র এখন প্রায় সকলেই জানেন। টাকার দৃশ্য টিও অপরিচিত নয়। গয়না থেকে বিদেশী মুদ্রা, সাত- আটটি ফ্ল্যাট। একজন মানুষের জীবন যাপনের জন্য সত্যি কী লাগে এত আয়োজন? প্রশ্নটা সবার মনে। নাকি দিন দিন টাকার স্তূপে চাপা পড়ে যাচ্ছে,পরিবার, জন্মদাত্রী মা, নিজের মনুষ্যত্ব, বিবেক সবকিছু?জীবন নাটকে ‘নায়ক’ নাকি ‘খলনায়ক’ কোনটি হয়ে উঠছি আমরা?

google-news-icon

লেটেস্ট খবর