fbpx

Visvabharati Exclusive: উপাচার্য বিদ্যুৎ চক্রবর্তীর বিরুদ্ধে বিস্ফোরক অভিযোগ বহিষ্কৃত SFI নেতার

পড়ুয়া বহিষ্কারকে কেন্দ্র করে গত কয়েকদিন ধরেই উত্তাল বিশ্বভারতী বিশ্ববিদ্যালয়(Visva-Bharati University)। গত ২৩ অগাস্ট রাতে বিশ্বভারতীর অর্থনীতি বিভাগের ছাত্র তথা এসএফআই (SFI) নেতা সোমনাথ সৌ, হিন্দি শাস্ত্রীয় সঙ্গীতের ছাত্রী রূপা চক্রবর্তী ও অপর ছাত্রনেতা ফাল্গুনী পানকে ৩ বছরের জন্য বহিষ্কারের সিদ্ধান্ত লিখিতভাবে জানিয়েছে বিশ্বভারতী কর্তৃপক্ষ। যদিও তাদের সাসপেনশন নিয়ে টালবাহানা চলছিল দীর্ঘদিন ধরেই। অবশেষে চূড়ান্ত সিদ্ধান্ত জানায় বিশ্বভারতী কর্তৃপক্ষ। আর তাতেই যেন ঘি পড়েছে আগুনে।

ইতিমধ্যেই বিশ্বভারতীয় ছাত্র বিক্ষোভের আঁচ ছড়িয়েছে গোটা রাজ্যেই। পথে নেমেছে এসএফআই সহ একাধিক বাম ছাত্র সংগঠন।  একই সঙ্গে বিভিন্ন ছাত্র সংগঠন ঐক্যবদ্ধ্ আন্দোলনের ডাক দিয়েছে রাজ্যের বিভিন্ন বিশ্ববিদ্যালয় ক্যাম্পাসে। আগামী ৩১ অগাস্ট বোলপুর স্টেশন চত্বর থেকে বড় মিছিলেরও ডাক দেওয়া হয়েছে এসআফআইয়ের তরফে। এবার তারই মাঝে ‘বেঙ্গলি ক্রোনিক্যালে’ বিশেষ সাক্ষাৎকারে নিজের ক্ষোভের কথা উগড়ে দিলেন বিশ্ববিদ্যালয়েরই বহিস্কৃত এসএফআই (SFI) নেতা সোমনাথ সৌ।

Two held for attack on SFI students at Visva-Bharati | India News,The Indian Express

সোমনাথের দাবি “আইনি পথে না হেঁটে অজানা আক্রোশ মেটাতেই ভিসি আমাদের বিরুদ্ধে একাধিক অভিযোগ এনেছেন। আমাদের বিরুদ্ধে ওঠা অভিযোগের খতিয়ে দেখতে বিশ্ববিদ্যালয়ের তরফে অভ্যন্তরীণ তদন্ত কমিটিও গড়া হয়েছিল। কিন্তু বর্তমানে সেই কমিটি একাধিক ভুয়ো তথ্য পেশ করে আমাদের দোষী প্রমান করার চেষ্টা চালাচ্ছে। এমনকী ভূতুড়ে সাক্ষ্যপ্রমাণও জোগাড় করে মিথ্যে অভিযোগও আনা হয়েছে। যে চার্জশিট তৈরি হয়েছে তাও ভিত্তিহীন। কোনও আইনি রাস্তা না হেঁটেই বরখাস্ত করে দেওয়া হয়েছে আমাদের।” যদিও বিশ্ববিদ্যালয়ের দাবি ‘অন্যায় করলে শাস্তি পেতেই হবে’, কিন্তু ঠিক কি ‘অন্যায়’ করেছে পড়ুয়ারা তা নিয়ে ঘোলা হচ্ছে জল।

এদিকে  বিশ্বভারতীর তিন পড়ুয়াকে বহিষ্কারের প্রতিবাদে গোটা বীরভূমেই ক্রমেই তীব্র হচ্ছে আন্দোলন। নিন্দায় সরব হচ্ছেন রাজ্যের শিক্ষক-ছাত্র মহলের বড় অংশ। এদিকে সাসপেনশন তোলার দাবি জোরদার আন্দোলনের রাস্তায় নেমেছে একাধিক বাম ছাত্র সংগঠন। অন্যদিকে এই আবহেই এবার বিশ্বভারতী বিশ্ববিদ্যালয়ে ইউনিট গড়ল তৃণমূল ছাত্র পরিষদ। যদিও ইউনিট গড়ার ঘোষণা আগেই করেছিলেন বীরভূমের তৃণমূল নেতা অনুব্রত মণ্ডল। নতুন ইউনিট নিয়েই অন্যদের কাঁধে কাঁধ মিলিয়ে উপাচার্য বিদ্যুৎ চক্রবর্তীর কাজকর্মের বিরুদ্ধে আন্দোলন গড়ে তোলার হুঁশিয়ারিও দেওয়া হয়েছে ঘাসফুল শিবিরের তরফে।

google-news-icon

লেটেস্ট খবর