fbpx

প্রায় প্রতি বছরই কেন ১৭ই সেপ্টেম্বর মর্তে আসেন বিশ্বকর্মা! জেনে নিন আসল রহস্য

মুখ ভার করা বর্ষা গিয়ে ধীরে ধীরে পেঁজা তুলোর মত একরাশ মেঘদলে ঝলমল করছে শরতের আকাশ। ঘুড়ির সুতোয় টান দিচ্ছে ৮ থেকে ৮০। আজ ১৭ ই সেপ্টেম্বর অর্থাৎ বিশ্বকর্মা পুজো (Viswakarma Pujo), বাঙালির শ্রেষ্ঠ উৎসব দুর্গাপূজার শুভ মহরত শুরু হয় এই দিন থেকেই।

আজকের সভ্যতা সম্পূর্ণ ভাবে নির্ভরশীল প্রযুক্তির উপর। সারা পৃথিবী জুড়ে এত আকাশচুম্বী বহুতল, শপিং মল, মাল্টিপ্লেক্স, আলপিন থেকে টুথব্রাশ, ফোন থেকে কম্পিউটার সবই যুক্তি আর পূর্তবিদ্যার আশীর্বাদ। ভারতীয় পুরাণ মতে দেবতা বিশ্বকর্মাই এই সব যাবতীয় বিদ্যাকে প্রথম গ্রন্থিত এবং বাস্তবায়িত করে তুলেছিলেন।

বিশ্বকর্মা চতুর্বাহুরক্ষমালাঞ্চ পুস্তকম্
কম্বাং (ম্বং) কমণ্ডলং ধত্তে ত্রিনেত্রৌ হংসবাহনঃ।।

অর্থাৎ বিশ্বকর্মার চার হাতে পুস্তক, অক্ষমালা, শঙ্খ এবং কমণ্ডলু শোভিত৷ কিন্তু বর্তমানে পুরাণের বিশ্বকর্মার রূপকে অনুসরণ না করে দেবতার হাতে হাতুড়ি, বিভিন্ন যন্ত্র, কাস্তে প্রভৃতি দিয়ে তাকে বাহন হাতির উপর অধিষ্ঠিত করা হয়। বিভিন্ন কল কারখানায় শ্রমজীবী মানুষের দেবতা হিসেবে তাঁর অর্চনা করা হয়।

কেন ১৭ই সেপ্টেম্বর বিশ্বকর্মা পুজো হয়,বিষকর্র্ম পুজোর ইতিহাস,নিয়ম,দূর্গা পুজো,Viswakarma Pujo 2021,Viswakarma Pujo rituals

তা হল, অন্য সব দেব-দেবীর তিথি মেনে হওয়ায় ক্যালেন্ডারে কোনও নির্দিষ্ট দিন না থাকলেও কেন বিশ্বকর্মা পুজো প্রায় প্রতি বছর ১৭ সেপ্টেম্বর উদযাপিত হয়? শিল্পের দেব বিশ্বকর্মার পুজো মানেই ১৭ সেপ্টেম্বর। ইংরাজি ক্যালেন্ডারে এই দিনটি কেন স্থির তা জানতে একটু পঞ্জিকা উলটে দেখতে হবে।

হিন্দু ধর্মে সব দেব-দেবীরই পুজোর তিথি স্থির হয় চাঁদের গতি প্রকৃতির উপর নির্ভর করে। এ বিষয়ে চান্দ্র পঞ্জিকা অনুসরণ করা হয়ে থাকে। কিন্তু বিশ্বকর্মার পুজোর তিথি স্থির হয় সূর্যের গতি প্রকৃতির উপর ভিত্তি করে। যখন সূর্য সিংহ রাশি থেকে কন্যা রাশিতে গমন করে, তখনই সময় আসে উত্তরায়ণের। দেবতারা নিদ্রা থেকে জেগে ওঠেন এবং শুরু হয় বিশ্বকর্মার পুজোর আয়োজন। হিন্দু পঞ্জিকার দুই প্রধান শাখা সূর্যসিদ্ধান্ত এবং বিশুদ্ধসিদ্ধান্ত- উভয়েই এ বিষয়ে একমত।

কেন ১৭ই সেপ্টেম্বর বিশ্বকর্মা পুজো হয়,বিষকর্র্ম পুজোর ইতিহাস,নিয়ম,দূর্গা পুজো,Viswakarma Pujo 2021,Viswakarma Pujo rituals

আবার সূর্যের কন্যা রাশিতে গমনকে কন্যা সংক্রান্তি বলা হয়। প্রচলিত ধারণা অনুযায়ী কন্যা সংক্রান্তির দিনেই জন্ম হয়েছিল দেবশিল্পী বিশ্বকর্মার। ভাদ্র মাসের শেষ তারিখে বিশ্বকর্মা পুজোর দিন নির্ধারিত হয়। ভাদ্র সংক্রান্তির আগে বাংলা পঞ্জিকায় পাঁচটি মাসের উল্লেখ পাওয়া যায়। এই পাঁচটি মাসের দিন সংখ্যাহল ১৫৬। এই নিয়মে বাংলা পঞ্জিকায় বিশ্বকর্মা পুজোর যে তারিখ পাওয়া যায়, তা ইংরেজি ক্যালেন্ডারের ১৭ সেপ্টেম্বরে গিয়েই দাঁড়ায়। তবে কোনও কোনও এই পাঁচ মাসের মধ্যে কোনটি ২৯ বা ৩২ দিনের হলে বিশ্বকর্মা পুজোর তারিখ এগোতে বা পিছোতে পারে। তবে এমন ঘটনা খুবই বিরল।

 

google-news-icon

লেটেস্ট খবর