fbpx

ধর্ম মানেন না! নিজে মুসলিম হয়েও বিয়ে করেছিলেন হিন্দুকে, জানেন কি মীরের এই গোপন তথ্য

প্রত্যুষা সরকার, কলকাতা: বর্তমানে যুগে মীর আফসার আলী ( Mir Afsar Ali ) বাংলার একজন অতন্ত্য জনপ্রিয় মানুষ। উত্তরবঙ্গ হোক বা দক্ষিণবঙ্গ প্রতিটা মানুষের কাছেই যেন ঘরের ছেলে মীর। মাস্যকৌতুক, রেডিও বা টিভি সবেতেই একেবারে পারফেক্ট তিনি। মাঝে মাঝেই সোশ্যাল মিডিয়ায় চর্চা হয় তাঁর। কখন প্রশংসা আবার কখনও সমালোচনা। তবে এবার চর্চাটা ছিল কিছুটা আবেগের। ২৭ বছরের রেডিও ( Redio ) স্টেশন থেকে বিদায় নিয়েছেন তিনি। কি এমন ঘটলো যার কারণে এমন সিদ্ধান্ত নিলেন তিনি?

মুর্শিদাবাদের একটি রক্ষণশীল বাঙালি মুসলিম পরিবারে জন্মগ্রহণ করেন মীর ( Mir Afsar Ali )। শৈশবে থেকে রেডিও শুনতে বেশ ভালোবাসতেন তিনি। ঘন্টার পর ঘন্টা চালানো থাকত রেডিও। তবে তাঁর রেডিও-তে প্রবেশের ঘটনা একেবারে ঘটনাক্রমে ঘটেছিল। প্রথমে আকাশবাণী তারপর শুরু রেডিও মির্চিতে তাঁর দীর্ঘ জার্নি। দীর্ঘ ২৭ বছর ৯৮.৩ রেডিও মির্চিতে কাজ করেছেন তিনি।

img 20220705 230311

মুসলিম পরিবারের সন্তান হলেও ধর্ম বলে কিছু বিশ্বাস করেন না তিনি। দুর্গাপুজো হোক বা ক্রিসমাস কিংবা খুশির ইদ, সকলকে শুভেচ্ছা জানাতে কখনো ভোলেন না মীর ( Mir Afsar Ali )। কখন হিন্দু মতে বিয়ের সাজে, কখনও আবার মির্চিতে শিব সাজে দেখা মিলেছে তাঁর। এর ফলে একাধিক বার সোশ্যাল মিডিয়ায় নানা ভাবে ট্রোলের শিকার হয়েছেন তিনি। যদিও ধর্ম টেনে মীরকে কটাক্ষ করা কোনও নতুন ঘটনা নয়। যে কোনও হিন্দু পুজোর শুভেচ্ছা জানালেই মীরকে নিয়ে চর্চা হয়েছে। অভিনেতা সামাজিক মাধ্যমে ‘যতই সর্বধর্ম সম্বন্বয়’র বার্তা দিক, তা যেন কারও চোখেই পড়েনা।

img 20220705 230557

রেডিও-র সাথে সাথে ছোট পর্দা, বড়ো পর্দা, স্টেজ, ইউটিউব এবং সংসার সমান ভাবে সামলেছেন মীর। তিনি তাঁর ব্যক্তিগত জীবনকে লাইমলাইটে আনতে পছন্দ করেন না একদমই। স্ত্রী সোমা ভট্টাচার্য, মেয়ে মুসকান আলী ( Mir Afsar Ali )। শুনে অবাক হলেন? যেখানে সারা বিশ্বে ধর্ম নিয়ে দাঙ্গায় মেতে সেখানে মীরের স্ত্রী একজন ব্রাহ্মণের মেয়ে। আগেই বলেছি ধর্মে বিশ্বাসী নন মীর। সম্প্রতি নুপুর শর্মার কথার পরিপেক্ষিতে গোটা ভারতবর্ষ জুড়ে শুরু হয়েছিল ধর্ম নিয়ে এক বিশাল দাঙ্গা। সে সব নিয়ে কোনও কথাই বলেননি সকাল ম্যান।

img 20220705 230654

সম্প্রতি এক সোশ্যাল মিডিয়ায় একটি পোস্টের মাধ্যমে তিনি জানা মির্চি ছাড়ছেন তিনি ( Mir Afsar Ali )। তবে রেডিও নই। এরপরই নেটমাধ্যমে ভেসে ওঠে আগেবের ছায়া। সবার মনে একটাই প্রশ্ন, কেন ছাড়লেন তিনি মির্চি? কী কারণ আছে এর পিছনে?

google-news-icon

লেটেস্ট খবর