fbpx

Ashoknagar College: রাত নামতেই ভেসে আসে কান্নার শব্দ! অশরীরী শক্তির উপদ্রবে নাজেহাল অশোকনগর বাসী

রাখী পোদ্দার, কলকাতা : কথায় আছে যেখানে ভুতের ভয় সেখানেই সন্ধ্যে হয়। আর এই প্রবাদ বাক্যটি সত্যি প্রতিফলিত হয়েছে অশোকনগর কল্যাণগড় ( Ashoknagar-Kalyangarh) এলাকার মানুষদের ওপর। সেখানকার মানুষদের দাবি রাত নামতেই বাড়ির পাশের কলেজ থেকে ভেসে আসছে মহিলার আর্তনাদ। শুনতে পাওয়া কান্নার শব্দ। আর এতেই ঘুম উড়েছে সেখানকার মানুষের। এমনকী আতঙ্কে কলেজ চত্বর দিয়ে যাতায়াতও বন্ধ করেছেন প্রায় সকলেই। যদিও এই ঘটনার মানতে নারাজ বিজ্ঞান মঞ্চের সদস্যরা। তবে আসল ঘটনা কী? সত্যি কী ভুতের উপদ্রবে নাজেহাল অশোকনগর বাসী? নাকি এর পিছনে লুকিয়ে রয়েছে কোনো মন গড়া গল্প? আসুন জেনে নেওয়া যাক।

উত্তর ২৪ পরগনার অশোকনগর কল্যাণগড় (Ashoknagar-Kalyangarh) পুরসভার ২২ নম্বর ওয়ার্ডের ধানকল এলাকায় রয়েছে একটি কলেজ। সম্প্রতি এই কলেজ ( Ashoknagar College) নিয়েই ভয় সৃষ্টি হয়েছে মানুষের মনে। সেখানকার লোকমুখে ছড়িয়ে পড়েছে যে, সেই কলেজে রয়েছে নাকি ‘ভূতের’ বাস। কেউ কেউ তো আবার দাবি করেন যে, রাত হতেই কলেজের ভিতর থেকে শোনা যায় মহিলার গোঙানি। কেউ আবার শুনেছেন কান্নার শব্দ। একজন কিংবা দুজন জন নয়, এলাকার একাধিক জন দীর্ঘদিন ধরেই নাকি শুনছেন এই শব্দ বলে দাবি করেন। এলাকার এক মহিলার কথায় ২০১৭ সাল থেকে এই শব্দ শুনছেন তিনি। কলেজের ( Ashoknagar College) পাশে থাকা শ্মশান যেন এই ‘ভূতের’ আতঙ্ককে মানুষের মনে বাড়িয়ে তুলেছে দ্বিগুণ।

Ashokanagar College
Ashokanagar College

ভয় যেন একেবারে জাঁকিয়ে বসেছে সকলের মনে। আর তাই সূর্য ডোবার পর না পারতে ওই এলাকায় যাচ্ছেন না কেউই। কিন্তু না গেলে কী! কলেজ সংলগ্ন এলাকার বাসিন্দাদের দাবি সেই কান্নার শব্দ যেন পিছু ছাড়ছে না তাঁদের। আর এই রহস্যভেদ করতেই ওই কলেজে গিয়েছিলেন বিজ্ঞান মঞ্চের সদস্যরা। ভাল করে কলেজ ঘুরে একটি ঘর থেকে তাঁরা উদ্ধার করেন একটি মরা পেঁচার দেহ। বিজ্ঞানমঞ্চের সদস্যদের কথায়, “ভূত নয়, কলেজ থেকে ভেসে আসা শব্দ ছিল ওই পেঁচার।” কিন্তু বিজ্ঞানমঞ্চের এই অশরীরির রহস্যভেদ একফোঁটাও আতঙ্ক কমাতে পারেনি এলাকাবাসীর। স্থানীয়দের স্থির বিশ্বাস, পেঁচা নয়, ওই কান্না কিংবা আর্তনাদের পিছনে রয়েছে কোনো অপ্রাকৃতিক শক্তি। কেউ কেউ আবার দাবি জানিয়েছেন পুলিশি তদন্তের। সব মিলিয়ে এখনও ভয়ংকর আতঙ্কে কাঁটা হয়ে রয়েছেন অশোকনগর ( Ashoknagar) কল্যাণগড় বাসীরা।

google-news-icon

লেটেস্ট খবর