fbpx

Hindustani Bhau: কপালে তিলক, গলায় চেইন! আর্থিক কষ্টে ধূপকাঠি বিক্রি করেছেন আজকের কোটিপতি ‘হিন্দুস্তানি ভাউ’

টাকার গদিতে বসে থাকলেও ভোলেননি পুরানো সেই দিন। আর্থিক কষ্টে পড়াশোনা ছেড়ে কাজের খোঁজে বেরিয়ে পড়তে হয়েছিল ‘হিন্দুস্তানি ভাউ’কে।

“নিকাল……!” এই বিখ্যাত ডায়লগ সোশ্যাল মিডিয়া জুড়ে এক সময় ভীষণ ভাবে জনপ্রিয়তা অর্জন করে। নেপথ্যে ছড়িয়ে পড়ে ‘হিন্দুস্তানি ভাউ’য়ের ( Hindustani Bhau ) নাম। সোশ্যাল মিডিয়ায় ( Social Media ) বেশ প্রভাবশালী মানুষ সে। নিজের বলন-চলনের জেরেই মানুষের কাছে বেশ জনপ্রিয়তা লাভ করেন তিনি। যুবক সমাজের একেবারে পছন্দের ব্যাক্তি হয়ে ওঠেন। খ্যাতি ছড়িয়ে গোটা দেশ জুড়েই। তার মধ্যেই একবার আমন্ত্রণ পান বিগ বসের দুয়ারেও। যার জেরে যেটুকু পরিচিতি বাকি ছিল তাও সম্পূর্ণ হয়ে যায়। 

আজকের দিনে দাঁড়িয়ে সমস্ত সোশ্যাল মিডিয়া মঞ্চ মিলিয়ের লক্ষাধিক অনুরাগী তাঁর। মানুষের মনের কোণে জায়গা করতে সফল ‘হিন্দুস্তানি ভাউ’। তবে জনপ্রিয়তার এই পথটা সহজ ছিল না। হিন্দুস্তানি ভাউ ( Hindustani Bhau ) নামেই দেশ-বিদেশে তাঁর পরিচিতি থাকলেও। কাছের মানুষেরা তাঁকে চেনে বিকাশ পাঠক নামে। আজকে মানুষের মুখে তাঁর নাম ছড়িয়ে পড়লেও এক সময় দ্বিতীয় গলির প্রতিবেশীরাও তাঁর নাম জানত না। ছোট থেকে আর্থিক কষ্টের সঙ্গে মোকাবিলা করে তাঁর বড় হওয়া। 

hindustani bhau1

উল্লেখ্য়, একদা বিগ বসের ( Big Boss ) মঞ্চে দাঁড়িয়েই নিজের হারিয়ে যাওয়া অতীত জীবনের কথা দর্শকদের সঙ্গে ভাগ করে নিয়েছিলেন তিনি। জানিয়েছিলেন, যখন তিনি ছোট ছিলেন,তাঁর বাবার চাকরি চলে যায়। সেই থেকেই বাড়িতে তৈরি হয় আর্থিক দুর্দশা। প্রয়োজনের তালিকা থেকে মন না চাইতেও বাদ দিতে হয় পড়াশোনাকে। বেরিয়ে পড়তে হয় কাজের খোঁজে। সংসার চালাতে হোটেলে ওয়েটারের চাকরি থেকে ধূপকাঠি বানান একাধিক কাজের সঙ্গে নিযুক্ত হয়ে পড়েন বিকাশ। 

প্রসঙ্গত, সে এক ভয়ানক সময়। নিজের জীবনে দাঁড়াতে  একাধিক ঝড়ের সম্মুখীন হতে হয় তাঁকে। তারপর অবশেষে গিয়ে বিকাশ পাঠক হয়ে যান ‘হিন্দুস্তানি ভাউ’। সোনার গহনা পড়তে ভীষণ ভালবাসেন তিনি। নিজের জীবনে দাঁড়িয়ে নিজেকেই লক্ষ টাকার সোনার চেইন, আংটি উপহার দিয়েছেন তিনি। এক সময়ে টাকার জন্য সংসার চালাতে না পারা বিকাশ পাঠক নিজের পা’য়ে দাঁড়ানোর উদ্দেশ্যে জীবনের সকল দরজাতেই টোকা মারে। আর এই টোকা মারতে গিয়েই হাজির হয় সোশ্যাল মিডিয়ার দরবারে। কালো কুর্তা, গলায় সোনার চেইন, মাথায় তিলক। এই রূপেই মন কাড়ে দর্শকদের। তার সঙ্গে তো রয়েছে কড়া ভাষায় বলন-চলন। তবে তাঁর এই কথা বলার ধরণের জন্য অধিকাংশ সময়ই বহু নেটিজেনদের কটাক্ষের শিকার হতে হয় তাঁকে। কিন্তু সেই সব কোনও কিছুতেই বিশেষ পাত্তা দিতে নারাজ তিনি।

বর্তমানে বিকাশ পাঠক মুম্বাইয়ের বাসিন্দা। শহরে মধ্যে অনেক সময়ই তাঁকে দামি গাড়ি নিয়ে ঘুরতে দেখা যায়। এককালে তিনি নাকি ইউটিউবার হওয়ার আগে একটি স্থানীয় সংবাদমাধ্যমের ক্রাইম রিপোর্টার ছিলেন। তাঁর সেই পেশায় দক্ষতার জন্য ২০১১ সালে সেরা চিফ ক্রাইম রিপোর্টারের খেতাবও পেয়েছিলেন তিনি।

google-news-icon

লেটেস্ট খবর